করোনাভাইরাসের দুটি টিকাকে অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে দেশ জুড়়ে শুরু হতে চলছে প্রথম পর্যায়ের টিকাকরণ কর্মসূচি। একনজরে দেখে নিন টিকাকরণ কর্মসূচির প্রয়োজনীয় তথ্য। মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় সরকার সূত্রে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে টিকাকরণ কর্মসূচির নিয়ম বিধি। 


১. টিকাকর্মসূচির জন্য আধারকার্ডের প্রমাণীকরণ অত্যান্ত জরুরি। আধারকার্ড অথবা যেকোনও পরিচয়পত্র দিয়ে নাম নথিভুক্ত করতে হবে সংশ্লিষ্ট গ্রাহকরে।

২. এসএমএস-এর মাধ্যমে টিকাপ্রদানের বিষয়ে নিশ্চিতকরা হবে। ১২টি ভাষায় এসএমএস পাঠিয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে করোনাভাইরাসের টিকা সম্পর্কে অবহিত করা হবে। 

৩. টিকাগ্রহণের ক্ষেত্রে নাম নথিভুক্ত করতে হবে কো-উইন অ্যাপের মাধ্যমে। তবে এখনই এই অ্যাপটি দেশের সাধারণ মানুষ ব্যবহার করতে পারবেন না। এখন এখন এই অ্যাপে শুধুমাত্র দেশের ৭৫ লক্ষ স্বাস্থ্য় কর্মী ও আধিকারিকের তথ্য আপলোড করা রয়েছে। কারণ প্রথম পর্বে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদেরই টিকা প্রদান করা হবে। 

৪. কোউইন অ্যাপলিকেশন চালু হওয়ার পর এই অ্যাপটিতে নিবন্ধকরণের জন্য তিনটি বিকল্প দেওয়া হবে। সেগুলি হল স্বনিবন্ধকরণ, স্বতন্ত্র নিবন্ধকরণ ও বাল্ক আপডেট। তবে এই প্রক্রিয়াটি সম্পর্কে এখনও পর্যন্ত পুরো তথ্য দেয়নি কেন্দ্রীয় সরকার। সম্ভবত সরকার টিকা প্রদানের জন্য যে শিবির চালু করবে সেখানে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নাম নথিভুক্ত করবেন দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা। 

৫. কো উইন অ্যাপে চারটি মডিউল থাকবে- ব্যবহারকারী প্রশাসক মডিউল, উপকারভোগী নিবন্ধকরণ, টিকা প্রদান ও সুবিধেভোগী স্বীকৃতি ও স্থিতি আপডেট। করোনাভাইরাস টিকা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য কেন্দ্রীয় সরকার 

৬. কেন্দ্রীয় সরকার মঙ্গলবার একটি প্রেস বিবৃতিতে জানিয়েছে কো- উইন ইকোসিস্টেম অ্যাপের মাধ্যমে টিকাকরণ কর্মসূচি চালাবে সরকার। টিকা গ্রহণকারীর নিজের প্রমানপত্র দাখিল করা অপরিহার্য। আর সেক্ষেত্রে আধারকার্ড বাধ্যতামূলক। 

৭. যারা টিকা গ্রহণ করতে চান তাদের জন্য একটি স্বাস্থ্য পরিচয়পত্র তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের। 

৮. কোনও ব্যক্তি টিকা গ্রহণের পর সম্ভাব্য প্রতিকূল প্রভাবগুলি পর্যবেক্ষণ করার জন্য ট্র্যাকিং-এর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। 

৯. সরকারের ডকুমেন্ট স্টোরেজ অ্যাপ্লিকেশন বা ডিজিলকার কিউআর কোডের মাধ্যমে টিকাগ্রহণকারী সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য সংরক্ষণ করবে। সর্বক্ষণের একটি হেলপলাইন নম্বর চালু থাকবে। 

১০. ৫০ বছরের উপরের যেসব ভারতীয় নাগরিককে টিকা দেওয়া হবে তাদের বয়সের প্রমাণ হিসেবে দেখা হবে ভোটার তালিকা। সেই তথ্য কো উইন অ্যাপের দেওয়ার। যখন তা সাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হবে তখন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি তা জানার জন্য ব্লক অফিস বা জেলা শাসকের কাছে গিয়ে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন। অসুস্থ ব্যক্তিরা মেডিক্যাল সার্টিফিকেট আপলোড করতে তবেই টিকার জন্য ছাড়পত্র পাবেন।