শীতকালীন অধিবেশন বাতিল হয়েছেন। আর সেই কারণে এগিয়ে আসতে পারে বাজেট অধিবেশন। সূত্রের খবর সংসদীয় বিষয় সম্পর্কিত মন্ত্রিসভা কমিটি আগামী ২৯ জানুয়ারি বাজেট অধিবেশন শুরু করার সুপারিশ করেছেন। অধিবেশন চলবে আগামী ৮ এপ্রিল। পয়লা ফেব্রুয়ারি পেশ হতে পারে কেন্দ্রীয় বাজেট।
 

সূত্রের খবর, কমিটির সুপারিশ অনুয়ায়ী দুদফায় হতে পারে বাজেট অধিবেশন। প্রথম দফার অধিবেশন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ২৯ জানুয়ারি থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। দ্বিতীয় দফা অনুষ্ঠিত হবে ৮ মার্চ থেকে ৮ এপ্রিল পর্যন্ত। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ২৯ জানুয়ারি সংসদের দুটি যৌথ অধিবেশনে বক্তব্য রাখবেন, সিসিপিএ-এর সুপারিশ অনুযায়ী ১ ফ্রেব্রুয়া বাজেট পেশ করা হবে বলেও জানান হয়েছে। 

'জিরো এফেক্স জিরো ডিফেক্ট' মন্ত্র মোদীর, বলেন দেশীয় পণ্য তৈরি করে মন কাড়তে হবে বিশ্ববাসীর ..

করোনাভাইরাসের নতুন প্রজাতির কাঁটা, আটকে দিলে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর ...

সূত্রের খবর বাদল অধিবেশনের মত বাজেট অধিবেশনেও করোনাভাইরাস সম্পর্কিত সমস্ত প্রোটোকল মেনে চলা হবে। বাজে অধিবেশন শুরুর আগেই সেই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। বাজেট অধিবেশন নিয়ে প্রতীক্ষা রয়েছে গোটা দেশ জুড়ে। কারণ শীতকালীন অধিবেশন না হওয়ায় কৃষক আন্দোলন নিয়ে কোনও আলোচনাই হয়নি সংসদে। আর এই বিষয় নিয়ে একাধিকবার আলোচনার দাবি জানিয়েছে কংগ্রেস। অন্যদিকে মহামারির মধ্যে এই প্রথমবার কেন্দ্রীয় সরকার বাজেট পেশ করবে। বাজেটে করোনাভ্যাক্সিনের জন্য ব্যায় বরাদ্দ থাকবে কিনা সেটাও দেখার।