দেশে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। বৃহস্পতিবার দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা নতুন রেকর্ড গড়ে প্রায় ১৭ হাজারের ঘরে পৌঁছে গিয়েছে। ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লক্ষ ৭০ হাজারের গণ্ডি ছাড়িয়ে গিয়েছে। এই অবস্থায় দেশের সব প্রান্তেই  স্কুল, কলেজ সহ সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। পরিস্থিতি যা তাতে অদূর ভূবিষ্যেত সবকিছু দ্রুত ঠিক হওয়ার সম্ভাবনা কম। আর এই প্রেক্ষাপটে একটা বড় সিদ্ধান্ত নিয়ে মিল আইসিএসই বোর্ড। এবছর দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল করা হল। পরে আর এই পরীক্ষা নেওয়া হবে না বলেই জানাচ্ছে আইসিএসই বোর্ড।

বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা জানান,  আইসিএসই বোর্ড দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পরে দ্বাদশ ও দশম শ্রেণির পরীক্ষার্থীরা চাইলে পরীক্ষা দিতে পারবেন না। সেই সুযোগ দিচ্ছে না আইসিএসই বোর্ড। জানা যাচ্ছে, ইন্টারনাল অ্যাসেসমেন্ট সিস্টেমের ভিত্তিতেই পড়ুয়াদের পরবর্তী শ্রেণিতে তুলে দেওয়া হবে। সে বিষয়ে অবশ্য বিস্তারিতভাবে এখনও কিছু জানায়নি সিআইসিএসই।

আরও পড়ুন: দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা এবার ১৭ হাজারের কাছাকাছি, রাশিয়াকে টপকাতে আর বেশি দেরি নেই

করোনাভাইরাস এবং লকডাউন পরিস্থিতিতে দশম শ্রেণির ইন্ডিয়ান সার্টিফিকেট সেকেন্ডারি এডুকেশন (আইসিএসই) এবং দ্বাদশ শ্রেণির ইন্ডিয়ান স্কুল সার্টিফিকেট (আইএসই) পরীক্ষা স্থগিত করে দিয়েছিল বোর্ড। পরে ঠিক হয়েছিল, আগামী ১ জুলাই থেকে বাকি থাকা পরীক্ষাগুলি শুরু হবে। চলবে আগামী ১৪ জুলাই পর্যন্ত। কিন্তু সেই পরীক্ষাই এবার একেবারে বাতিল করার সিদ্দান্ত নিয়ে নিল আইসিএসই বোর্ড।

করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় বোর্ড পরীক্ষা নিতে আপত্তি জানিয়েছিল দিল্লি, মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু সহ একাধিক রাজ্য।  সেকথা জানার পরেই বোর্ডের পক্ষ থেকে পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে সেকথা জানান সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা।

আরও পড়ুন: কূটনৈতিক বৈঠকের পিছে চলছে সমরসজ্জাও, অরুণচল-সিকিম আর উত্তরাখণ্ড সীমান্তে সেনা বাড়াচ্ছে চিন

এদিকে আইসিএসই-র মত করোনা পরিস্থিতিতে দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিল সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন বা সিবিএসই। বৃহসপ্তিবার সুপ্রিম কোর্টকে এই সিদ্ধান্তের কথা জানায় সিবিএসই বোর্ড। এর ফলে আগামী ১ থেকে ১৫ জুলাইয়ের সমস্ত পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে।  তবে  পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরীক্ষা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে সিবিএসই। এক্ষেত্রে সিবিএসই দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষায় বসা ঐচ্ছিক করেছে।

বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের বোর্ডের সিদ্ধান্তের কথা জানান সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা। করোনা পরিস্থিতিতে মাঝ পথেই বন্ধ রাখতে হয়েছিল সিবিএসই-র দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা। সেই পরীক্ষা গুলি চাইলে পরীক্ষার্থীরা পরে দিতে পারবেন বলে জানানো হয়েছে।