অন্যের সাহায্য নিয়ে নয়। এবার হইলচেয়ারের সাহায্য়ে একা একাই দাঁড়াতে পারবেন প্রতিবন্ধীরাও। সম্পূর্ণ ভারতীয় প্রযুক্তিতে এমনই এক অভিনব হুইলচেয়ার তৈরি করে ফেলল আইআইটি মাদ্রাজ। নতুন এই হুইলচেয়ারের নাম দেওয়া হয়েছে 'অ্যারাইজ'। মঙ্গলবারই নতুন এই হুইলচেয়ারের উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থওয়ারচাঁদ গেহলট। 

ফোনিক্স মেডিক্যাল সিস্টেম এবং যুক্তরাজ্যের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে এই হুইলচেয়ারের নকশা তৈরি হয়েছে আইআইটি মাদ্রাজে। নতুন এই হুইলচেয়ারের দাম পড়বে পনেরো হাজার টাকা। এই হুইলচেয়ারে এমন স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা রয়েছে, যাতে প্রয়োজনে হলে কারও সাহায্য ছাড়াই একা একা দাঁড়াতে পারবেন ব্যবহারকারী। আবার চাইলেই হুইলচেয়ারে বসে পড়তে পারবেন তিনি। 

যে সংস্থার সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে এই হুইলচেয়ার বাজারে আনা হচ্ছে, তার ম্যানেজিং ডিরেক্টর  ভি শশী কুমারের দাবি, সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে এমন নকশার এবং সুবিধে সম্পন্ন হুইলচেয়ার এই প্রথম তৈরি করা হল। বিদেশে অবশ্য এমন হুইলচেয়ার তৈরি হয়। কিন্তু এ দেশে আমদানি করার পরে এক একটি হইলচেয়ারের দাম পড়ে দেড় লক্ষ টাকা। কেন্দ্রীয় সরকারের সামাজিক ন্যায় এবং ক্ষমতায়ণ দফতরের সাহায্যে এই হুইলচেয়ার যাতে আরও বেশি সংখ্যক মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া যায়, সেই চেষ্টা করা হবে বলে জানিয়েছেন শশী কুমার। 

ব্যবহারকারীর ওজন এবং অন্যান্য বিভিন্ন দিক খতিয়ে দেখে এই হুইলচেয়ারের নকশা তৈরি করা হয়েছে। বেশি বড় আকারের না করার পাশাপাশি হুইলচেয়ারের নিরাপত্তার দিকটিও সুনিশ্চিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্মাতারা। 

দু' বছর আগে পথ দুর্ঘটনায় জখম হয়ে চলাফেরার শক্তি হারিয়েছিলেন ৩৬ বছরের ডি অশোক কুমার। তার পর থেকেই নড়াচড়ার জন্য হুইলচেয়ারের উপরেই নির্ভরশীল হয়ে পড়েছিলেন তিনি। কিন্তু কিছুতেই দাঁড়িয়ে নিজের দু' বছর বয়সি মেয়েকে কোলে নিতে পারতেন না অশোক কুমার। এতদিনে তাঁর সেই আক্ষেপ মিটিয়েছে আইআইটি মাদ্রাজে তৈরি এই হুইলচেয়ার। স্বভাবতই খুশি অশোক কুমার বলেন, 'আর পাঁচজনের কাছে এটা হয়তো অত্যন্ত তুচ্ছ বিষয়। কিন্তু একা দাঁড়িয়ে নিজের মেয়েক কোলে নিয়ে আমি যে আনন্দ পেয়েছি, তা ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না।'

শারীরিক অক্ষমতার কারণে অশোক কুমারের মতো অনেককেই কিছুটা হলেও আত্মনির্ভর করে তুলবে 'অ্যারাইজ'। হতাশা কাটিয়ে উঠে দাঁড়ানোর নতুন শক্তি জোগাবে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এই হুইলচেয়ার।