বুধবার সফল হল ভারতের ম্যান পোর্টেবল অ্যান্টি ট্যাঙ্ক গাইডেড মিসাইল সিস্টেমের পরীক্ষা। অন্ধ্রপ্রদেশের কুর্নুলের একটি ফায়ারিং রেঞ্জে এটির পরীক্ষা করা হয়। ভারতীয় সেনাবাহিনী জানিয়েছিল তাদের এই মুহূর্তে আরও উন্নত ট্যাঙ্ক-বিধ্বংসী গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র দরকার। সেই প্রয়োজনিয়তা মেনেই দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি করা হয়েছে এই তৃতীয় প্রজন্মের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা।

এর আগে এই ক্ষেপণাস্ত্রের আরও দুটি পরীক্ষা সফল হয়েছিল। এদিন ছিল তৃতীয় পরীক্ষা। এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থাটি সহজেই এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় বয়ে নিয়ে যাওয়া যায়। কিন্তু তাই বলে এর ক্ষমতাকে ছোট করে দেখলে হবে না। এতে গাইডেন্স সিস্টেম আছে বলে একেবারে নির্দিষ্ট লক্ষ্যে গিয়ে আঘাত করতে পারে।

এদিন কুর্নুলের ফায়ারিং রেঞ্জে, একটি ট্রাইপডের উপর রেখে ক্ষেপণাস্ত্রটি নিক্ষেপ করা হয়। কার্যকর ট্যাঙ্কের অনুকরণে একটি লক্ষ্য তৈরি করা হয়েছিল। ক্ষেপণাস্ত্রটি সেই লক্ষ্যটিকে 'টপ অ্যাটাক মোডে' গিয়ে আঘাত করে। লক্ষ্যটি তাতে সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়েছে।

ক্ষেপণাস্ত্রটি তৈরি হয়েছে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে। তৈরি করেছে ডিফেন্স রিসার্চ  অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন বা ডিআরডিও। এরপরে আরও কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হবে এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থাটির। সেগুলি সফল হলেই সেনার অস্ত্রাগারে যুক্ত হবে এই নতুন ক্ষেপণাস্ত্র।