মাত্র দুই দিন কেটেছে। তার মধ্যেই জবাব ফেরত পেলেন রাহুল গান্ধী। যোগদিবসে সেনার ডগ স্কোয়াড নিয়ে ট্যুইট করার জন্যে এবার তাঁর বিরুদ্ধে এফআআইআর দায়ের করা হল। 

গত শুক্রবার দুটি ছবি নিদজের ট্যুইট হ্যান্ডেলে শেয়ার করেন রাহুল গান্ধী। ডগ স্কোয়াডের যোগ অভ্যাসের ছবিটির ক্যাপশান হিসেবে লেখেন  'এই হল নতুন ভারত '।

রাহুল গান্ধীর এই ট্যুইটিকে ঘিরে তুমুল জল্পনা তৈরি হয়। অমিত শাহ কার্যত তাঁকে এক হাত নেন। সেনাকে অসম্মান করা হয়েছে, এই মর্মে প্রতিক্রিয়া দেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহও। 

এর পরেই আরও এক পা বাড়িয়ে তার বিরুদ্ধে এফআইআর করেন মুম্বই নিবাসী আইনজীবী অটল বিহারী দুবে। নিজের ট্যুইটারে তিনি লেখেন, আজাদ ময়দান থানায় রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করলাম। ভারতীয় সেনাকে অপমান করেছেন তিনি। 

তাঁর বক্তব্য, রাহুলের টুইটটি সেনাকে জেনেবুঝে অপমান করার জন্যেই করা। একই সঙ্গে তিনি জনতাকে বিভ্রান্ত করারও চেষ্টা করেছেন। এবার তাঁকে  এর মাশুল গুণতে হবে। শ্রী রাহুল গান্ধীকে আইনের সঙ্গে লড়তে হবে।

প্রসঙ্গত রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে ভারতীয়  দণ্ডবিধির ৫০৫(২) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। রাহুল গান্ধী এ বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে কোনও মন্তব্য করেননি।

বলা বাহুল্য যোগ দিবস নিয়ে এবার মুখ খুলেছিলেন বেশ কিছু নেটিজেন। বিহারে এনকেফেলাইটিসে শিশু মৃত্যু নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নীরবতাই ছিল লক্ষ্য। এই আবহেই ট্যুইট করেন রাহুল। রাহুলের ট্যুইটকে কংগ্রেসি ঘরানা নেতিবাচক মনোভাব বলে চিহ্নিত করেন অমিত শাহ। আর আইনি পদক্ষেপটা নিয়েই ফেললেন মুম্বইয়ের এই আইনজীবী।