চাইলেই ভারতীয় সেনাবাহিনী পাকিস্তান-অধিকৃত কাশ্মীর ফিরিয়ে নিতে পারে। শনিবার  এমনই দাবি করলেন নয়া সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে। তবে তার জন্য দরকার সংসদের আদেশ। তবে চিন অধিকৃত কাশ্মীরের কি হবে, সেই বিষয়ে কিছুই বলেননি তিনি।

ইতিমধ্যেই জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্য ভেঙে দুটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল তৈরির সময়, পাক অধিকৃত অঞ্চল-সহ সমগ্র জম্মু ও কাশ্মীরই ভারতের অন্তর্ভুক্ত বলে সংসদীয় প্রস্তাব নেওয়া হয়েছে। এবার সংসদ যদি চায় পিওকে-র দখল ফিরিয়ে নিতে তবে ভারতীয় সেনাবাহিনী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করবে বলে জানিয়েছেন সেনাপ্রধান।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর পক্ষে কি সত্য়ি সত্য়ি পিওকে পুনর্দখল করা সম্ভব? জেনারেল নারভানে বলেছেন, জম্মু-কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর বাহিনী মোতায়েন রয়েছে। সেইসঙ্গে অধিকৃত কাশ্মীর পূনর্দখলের জন্য ইতিমধ্য়েই সেনার হাতে একক নয় বেশ কয়েকটি পরিকল্পনা ছকা রয়েছে। দরকার পড়লেই সেগুলি কার্যকর করা যেতে পারে। আর এই কাজে বাহিনী পুরোপুরি সফল হবে বলেও জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

জম্মু ও কাশ্মীরের রাজ্যের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করার পরবর্তী কয়েকমাসে ভারত সরকারের একাধিক মন্ত্রী প্রকাশ্যেই অধিকৃত কাশ্মীর পুনর্দখল করার কথা তুলেছেন। বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর গত সেপ্টেম্বরে বলেছিলেন, পিওকে 'ভারতেরই অঙ্গ' এবং আশা করি একদিন এই অঞ্চল সরাসরি ভারতের এক্তিয়ারে আসবে।