শুরু হল 'বন্দে ভারত মিশন'। বিদেশে আটকে পড়া ভারতীয়দের দেশে ফেরাতে এয়ার ইন্ডিয়ার যে ৬৪টি বিশেষ বিমান পাঠাচ্ছে, তার প্রথমটি এদিন আবুধাবি-তে পৌঁছে গিয়েছে। সেখান থেকে বেশ কয়েকজন ভারতীয় যাত্রীকে নিয়ে বিমানটি ফিরবে কেরলে। বিপর্যয়ের সময়ে দীর্ঘদিন প্রবাসে আটকে পড়া ভারতীয়রা অবশেষে দেশে ফিরে আসার সুযোগ পেয়ে আনন্দে আপ্লুত।

প্রত্যেকেই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন, সংযুক্ত আরব আমিরশাহির ভারতীয় দূতাবাসের প্রতি। এক মহিলা জানিয়েছেন, তিনি গর্ভবতী। তাই এই অবস্থায় আমিরশাহিতে আটকে পড়ে বেশ ঘাবড়েই গিয়েছিলেন তিনি। তাই শেষ পর্যন্ত দেশে ফেরার সুযোগ পেয়ে তিনি খুব নিশ্চিন্ত বোধ করছেন। আরেক গর্ভবতী মহিলাও জানিয়েছেন তিনি গর্ভবতী বলেই তাঁকে ফেরার বিষয়ে অগ্রাধিকার দিয়েছে দূতাবাস। আরেকজন জানিয়েছেন তিনি প্রাণঘাতি রোগে ভুগছেন। কেরলে ডাক্তার দেখাতে ফিরছেন।

সংযুক্ত আরব আমিরশাহি থেকে ভারতে ফিরছেন ২০০ জন। তাঁরা সকলেই কেরলের। এছাড়া আপাতত দেশে ফিরছেন সৌদি আরব, কুয়েত, বাহরিন ও মালয়েশিয়ায় আটকে পড়া ভারতীয়রা। ফিরেই অবশ্য তাদের বাধ্যতামূলকভাবে পৃথকীকরণ বা কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। এর  জন্য ভারতীয় সেনা, নৌসেনা ও বায়ুসেনার পক্ষ থেকে যোধপুর, জয়সলমির, ভোপাল, কোচি, বিশাখাপত্তনম এবং চেন্নাই-এ - মোট ৬টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

বিদেশ মন্ত্রক ও অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রকের সঙ্গে সমন্বয় করে এই পাঁচ দেশ থেকে ফেরা ২,১০০ জন ভারতীয়কে এই কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলিতে রাখা হবে। মন্ত্রক আরও জানিয়েছে, কোয়রেন্টাইনে থাকার পর অনুমোদিত স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং পদ্ধতি অনুসারে তাদের পরবর্তী যাত্রার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।