মঙ্গলবার ভারতের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২,৬৮,৬৭৬-এ। সবচেয়ে বেহাল অবস্থা অবশ্যই মহারাষ্ট্রের, তারপরই রয়েছে  তামিলনাড়ু এবং অন্ধ্রপ্রদেশ। উত্তরপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, পঞ্জাব, তেলেঙ্গানা, গুজরাত, এবং বিহারের অবস্থাও তথৈবচ। এই অবস্থায় মঙ্গলবার এই দশ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভিডিও কন্ফারেন্সে বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কোভিড মোকাবিলায় তিনি দিলেন ৭২ ঘন্টার সূত্র।

কী সেই ৭২ ঘন্টার সূত্র? এদিন প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন কোভিড মোকাবিলায় এই ৭২ ঘন্টা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন যদি ৭২ ঘন্টার মধ্যে কোনও ব্যক্তির সংক্রমণ সনাক্ত করা যায় তবে সংক্রমণের বিস্তার অনেকাংশে নিয়ন্ত্রণ করা যায়। তাই, কোনও সংক্রামিত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা সমস্ত লোকের ৭২ ঘন্টার মধ্যে করোনা পরীক্ষা করানো উচিত। তাতে এই উচ্চ জনঘনত্বের ১০ রাজ্যে কোভিড সংক্রমণ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করা যাবে বলে মনে করছেন মোদী।

করোনা মহামারী ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে রাজ্যগুলির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর এটি সপ্তম ভিডিও কনফারেন্স। শেষবার মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে তিনি করোনভাইরাস সঙ্কট নিয়ে আলোচনার জন্য বৈঠক করেছিলেন গত জুন মাসে। এদিন তিনি জানিয়েছেন, প্রতিটি রাজ্যই করোনাভাইরাস মহামারির কারণে উদ্ভূত চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতির বিরুদ্ধে লড়াই করছে। এই রোগের বিস্তারকে সার্বিক নিয়ন্ত্রণে শুধু কেন্দ্রের নয় প্রতিটি রাজ্যের ভূমিকাই অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

উত্তরোত্তর আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চললেও ভারত ঠিক পথেই চলছে বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন, মৃত্যুর গড় হার ক্রমেই কমছে, পাশাপাশি সুস্থ হয়ে ওঠার হার প্রতিদিন বাড়ছে। কাজেই আমরা যেসব ব্যবস্থা নিয়েছি তা একেবারে সঠিক।