মঙ্গলবার আশুরা উপলক্ষ্যে শোক পালন চলছিল কারবালায়। আর তার মধ্যেই শোকের শহরে ঘটে গেল নতুন শোকের ঘটনা। ভেঙে পড়ল হাঁটাপথের একটা বড় অংশ। পদপিষ্ট হয়ে মৃত্যু হল অন্তত ৩১ জন তীর্থযাত্রীর। আহত শতাধিক।

ইরাকের রাজধানি বাগদাদ থেকে ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত ঐতিহাসিক শহর কারবালা। প্রতিবছরের মতোই আশুরার দিনে লক্ষ লক্ষ মানুষ তাজিয়া মিছিল নিয়ে এসেছিলেন কারবালায়। তাজিয়া মিছিলের একেবারে শেষ দিকে তৈরিজ দৌড়ের সময়ই ঘটে যায় এই দুর্ঘটনা। লক্ষ লক্ষ মানুষ কারবালায় ইমাম হুসেনের মাজারের দিকে দৌড়ে যাওয়ার সময়ই ভেঙে পড়ে তীর্থযাত্রীদের চলার জন্য তৈরি করা অস্থায়ী পথ।

৬৮০ খ্রীষ্টাব্দে আশুরার দিনেই কারবালার যুদ্ধে মৃত্যু হয়েছিল হজরত মহম্মদের পৌত্র ইমাম হুসেনের। ইমাম হুসেনের মামাতো ভাই কারবালার কাছের তৈরিজ গ্রাম থেকে দৌড়ে গিয়েছিলেন হুসেনকে বাঁচাতে। কিন্তু তিনি কারবালায় পৌঁছনোর আগেই হুসেনের মৃত্যু হয়। এই দৌড়কে স্মরণ করেই আশুরার দিনে তৈরিজ দৌড়ে অংশ নেন শিয়া মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ।  

সাম্প্রতিককালে শিয়া সম্প্রদায়ের মুসলিমদের উপর আশুরার দিনে সুন্নি চরমপন্থী জঙ্গিরা হামলা চালিয়েছে। এদিন সেই কথা মাথায় রেখেই কারবালায় কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। দুর্ঘটনার আগে পর্যন্ত বেশ নিরুপদ্রপেই চলছিল আশুরা পালন। পথটি ভেঙে পড়ার পরই তীর্থযাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে। তবে কর্তৃপক্ষ দ্রুতই ব্যবস্থা নিয়েছে।