আর মাত্র কয়েক ঘন্টা বাকি মোদি সরকারের শপথ গ্রহণের।  তাতে অংশ নেবেন দেশ-বিদেশের অভ্যাগতরা।  শোনা যাচ্ছে অনুষ্ঠানে যাবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।  এই একই অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন নিহত বিজেপি কর্মী মনু হাঁসদার পরিবারের লোকজন।


কে এই মনু হাঁসদা? ২০১৮ সালে ১২ এপ্রিল পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কেশিয়াড়ি থানার বাড়িদাঁ গ্রামে বিজেপির এবং তৃণমূলের সংঘর্ষে আহত হন প্রায় ১৩ জন। রড দিয়ে পিটিয়ে মারা হয় বিজেপি কর্মী মনু হাঁসদাকে। 

কটকের এক হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। মৃতদেহ দাহ করেনি ক্ষুব্ধ মনু হাঁসদার পরিবারকে। 


ব্যাপক জলঘোলা শুরু হয় তাঁর মৃত্যু নিয়ে।  ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের বাইরে তাঁর দেহ রেখে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপির কর্মীরা।  নিহত বিজেপি কর্মীর ছেলে কার্তিক বলেন, "বাবার খুনিদের গ্রেফতারের দাবিতে মৃতদেহ ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের সামনে বাবার দেহ রেখে বিক্ষোভ দেখিয়েছি।

 তার পরে গঙ্গা দিয়ে বিস্তর জল বয়ে গিয়েছে। ব্যাপক ক্ষতির মুখোমুখি হয়েছে তৃণমূল। মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্রে জয় হয়েছে বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষের। এবার এই সাধারন পার্টি কর্মীর পরিবারকে সম্মান জানাতে চাইছে নমো সরকার।  

নিহত বিজেপি কর্মীর ছেলে কার্তিক হাঁসদা জানালেন, 'কেশিয়াড়ি এখন শান্ত। বাবার মৃত্যুর সুবিচার চেয়েছিলাম আমরা। সরকার যে আমাদের কথা মনে রেখেছে, তাতে আমি আপ্লুত। আমরা গোটা পরিবার দিল্লি যাচ্ছি।'