বিহার নির্বাচনের মুখে কিছুটা হলেও হাসি ফুঁটেছিল রাষ্ট্রীয় জনতা দলের মুখে। কিন্তু, তা  আর স্থায়ী হল না। কারণ, ঝাড়খণ্ড হাইকোর্ট লালুপ্রসাদ যাদব-কে চাইবাসা মামলায় জামিন দিলেও দুমকা ট্রেজারি মামলায় জামিন এখনও স্থগিত রেখেছে। ফলে, জেল থেকে বের হওয়াটা ঝুলে গেল লালুপ্রসাদের। 

শুক্রবার ঝাড়খণ্ড হাইকোর্টে ৯৫০ কোটি টাকার চাইবাসা ট্রেজারি কেলেঙ্কারির মামলায় লালু-র জামিনের বিষয়টির শুনানি শুরু হয়। ১৯৯২-৯৩ সালে চাইবাসা ট্রেজারি থেকে পশুখাদ্য-র জন্য থাকা অর্থের মধ্যে থেকে ৩৩.৬৭ কোটি টাকা তুলে নেওয়া হয়েছিল। এই ঘটনার সময় বিহারের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন লালুপ্রসাদ যাদব। সিবিআই তদন্তে জানা যায়, বেআইনিভাবে এই অর্থ তোলা শুধু হয়নি, সেই অর্থ সরকারি কোনও খাতে না গিয়ে কিছু রাজনৈতিক নেতার পকেটে গিয়েছে। সিবিআই তদন্তে এই আর্থিক কেলেঙ্কারিতে দুর্নীতি সাব্যস্ত হন লালুপ্রসাদ যাদব।