উত্তর ভারতে জয়ধ্বজা উড়েছে, কিন্তু দক্ষিণ ভারতে একমাত্র কর্ণাটক ছাড়া তেমন সাফল্য আসেনি গেরুয়া শিবিরের। দক্ষিণের অন্যান্য রাজ্যে দলের শক্তি বৃদ্ধিতে বহু দিন ধরেই চেষ্টা চালাচ্ছেন মোদী-শাহরা। তাতে যে তারা কিছুটা হলেও সফল হয়েছেন বলতে হবে। তেলেগু দেশম পার্টি, জনসেনা এবং কংগ্রেসের একাধিক নেতা দিল্লি গিয়ে নাম লেখালেন পদ্ম শিবিরে। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর দলের কার্যনির্বাহী সভাপতি জেপি নাড্ডার সঙ্গেও দেখা করেন তারা। 

তেলেঙ্গানা থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া এই নেতারা অধিকাংশই তরুণ। নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে কাজ করার জন্যই এরা কংগ্রেস ও টিডিপি ছেড়েছেন বলে দাবি করেন বিজেপির জাতীয় সাধারণ-সম্পাদক মুরলীধর রাও। আগামী দিনে দক্ষিণের আরও বহু নেতা বিজেপির ছাতার তলায় আসবে বলে আশা করছে পদ্ম শিবির। 

দল বদল করে আসা নেতাদের মধ্যে রয়েছেন যুব টিডিপির  রাজ্য সভাপতি বীরেন্দ্র গউর। ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে টিডিপির হয়ে ভোটেও লড়েন বীরেন্দ্র। তবে বীরেন্দ্রর পুরো পরিবারই প্রথম থেকে বিজেপর সমর্থক। যুব নেতাদের যোগদানের ফলে তেলেঙ্গানা ও অন্ধ্রপ্রদেশে দল আরও শক্তিশালী হল বলে দাবি করছে বিজেপি নেতৃত্ব।