উদ্ধব ঠাকরে-কে ফোনে সনিয়া জানিয়েছেন কংগ্রেস শিবসেনাকে সমর্থন করবে। মনে করা হয়েছিল এতে করে অবশেষে যবনিকা পড়ল মহারাষ্ট্রের মহানাটকের। কিন্তু ফের শুরু হল আরেক অঙ্ক। সরকার গঠনের জন্য শিবসেনার দাবি মেনে নিলেও তাদের দাবি অনুযায়ী সরকার গঠনের জন্য অতিরিক্ত সময় দিলেন না রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারি। তৃতীয় বৃহত্তম দল হিসেবে ডাক পেল এনসিপি।

এদিন সনিয়ার ফোনের পরই আদিত্য ঠাকরে, একনাথ শিন্ডে-সহ শিবসেনার নেতারা রাজ্যপালের বাসভবনে গিয়ে সরকার গঠনের দাবি জানান। সেখান থেকে বেরিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে আদিত্য ঠাকরে জানান, তাঁরা রাজ্যপালের কাছে সরকার গঠনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। তবে সরকার গঠনের জন্য আরও দুইদিন অতিরিক্ত সময় চেয়েছিলেন। কারণ তাদের হাতে এখনও কংগ্রেস বা শিবসেনার সমর্থনের আনুষ্ঠানিক চিঠি আসেনি। রাজ্যপাল তাঁদের প্রথম দাবি মানলেও, পরেরটি মানেননি। তবে এরপরেও তাঁরা সরকার গঠনের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন আদিত্য ঠাকরে।  

আদিত্য ঠাকরে আরও জানান এনসিপি ও কংগ্রেস দুই দলেরই উচ্চতর নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁদের কথা হচ্ছএষ শিবসেনার সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন দুই দলের বিধায়করাও। কাজেই মহারাষ্ট্রে দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হিসেবে তাঁদের রাজ্যপালের কাছে সরকার গঠনের দাবি জানানোর অধিকার ছিল। তাঁরা সেটাই করেছেন। কিন্তু, কংগ্রেস ও এনসিপির সঙ্গে আলোচনার চালাতে তাঁদের আরও ৪৮ ঘন্টা মতো সময় লাগবে।

কংগ্রেসের তরফে এখনও শিবসেনাকে সমর্থন করা নিয়ে কিছুটা কিন্তু-কিন্তু ভাব রয়েছে। কংগ্রেসের নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে জানিয়েছেন, এআইসিসি সভানেত্রী সনিয়া এদিন শরদ পওয়ার-এর সঙ্গে কথা বলেছেন। তবে মঙ্গলবার মুম্বইয়ে এই বিষয়ে আরও আলোচনা হবে। ওইদিন এনসিপি প্রধান শরদ পওয়ারের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন কংগ্রেস কেন্দ্রীয় দুই নেতা। উপস্থিত থাকবেন রাজ্য নেতারাও। ওই আলোচনার পরই পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করা হবে।