করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেমে প্রথম থেকেই ভারত জোর দিয়েছিলল লকডাউমনে। গত ২৫ মার্চ থেকে টানা দুমাসেরও বেশি সময় ধরে চার পর্বে লকডাউন চলছে দেশে। রবিবারই শেষ হচ্ছে চতুর্থ পর্বের লকডাউন। আরও এক মাসের জন্য লকডাউনের কথা ঘোষণা করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর মাসিক রেডিও  অনুষ্ঠান 'মন কি বাত'এর মাধ্যমে রবিবারই জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন। সেখানে তিনি বলেনঃ 

নরেন্দ্র মোদীর 'মন কি বাত'
বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে আমাদের অনেক কঠোরভাবে করোনাভাইরাসের সমস্ত নিয়মবিধি মেনে চলতে হবে। 
কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছে গোটা দেশ। 
আমাদের দেশের জনসংখ্যা অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক বেশি, তবুও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে আমরা অনেক বেশি সক্ষম। 
আমরা যখনই অন্য দেশের দিকে তাকাই তখনই বুঝতে পারে কতটা সফল হয়েছি আমরা। 
আমরা ভারতীয়রা দেখিয়ে দিয়েছে সেবা ও ত্যাগের মাধ্যমে এগিয়ে চলতে তাঁরা সক্ষম। 
চিকিৎসক, পুলিশসহ যাঁরা এই পরিস্থিতিতে অন্যের জন্য কাজ করছে তাঁদের ভূমিকা অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ। আগেই তাঁদের অবদান স্বীকার করেছেন তিনি। 
যাঁরা সমাজের জন্য কাজ করছে তাঁদের সবাইকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। 
দেশের মানুষ অর্থাৎ বন্ধুদের উদ্বাভনী শক্তিও মন ছুঁয়ে গেছে তাঁর। 
করোনার বিরুদ্ধে বিজয় নির্ভর করবে নতুনত্বের ওপর ভিত্তি করে। 
এখনও ভাইরাসটির প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি। 
এই রোগটি দরিদ্র, শ্রমজীবী মানুষসহ সকলকেই প্রবল সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে।
রেল কর্মী, রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মীরা দিন রাত এক করে কাজ করছেন। 
রেলর আধিকারিকদেরও করোনা যোদ্ধা বললে অত্যুক্তি হয় না। 


এদিন মন কি বাত অনুষ্ঠান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আমফান বিধ্বস্ত বাংলা ও ওড়িশার কথাও উল্লেখ করেছেন। মন কি বাত অনুষ্ঠানের ৬৫তম পর্ব ছিল এদিন।