প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে দেশের একাধিক এলাকার জলছবি ছিল চোখে পড়ার মতো। কেরল, কর্ণাটক, গুজরাত, মহারাষ্ট্রের পাশাপাশি ভারী বৃষ্টির কারণে প্লাবিত হয়েছে মধ্যপ্রদেশের বেশকিছু এলাকা। গত কয়েকদিনের ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে মধ্যপ্রদেশের মন্দাসৌর জেলা কার্যত বন্যার কবলে পড়েছে। 

বন্যার কারণে গ্রামীণ অঞ্চলের সঙ্গে শহরাঞ্চলের যোগাযোগ কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে বলে খবর। বর্ষার কারণে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে মধ্যপ্রদেশের শিবানা নদীর জল। সূত্রের খবরশিবানা নদীর জল প্রবেশ করেছে পশুপতিনাথ মন্দিরেও। 

আর এরই মাঝে ঘটে গিয়েছে এক ভয়াবহ দুর্ঘটনা। মধ্যপ্রদেশের রাজগড় জেলায়, বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত একটি নদী পেরোনোর চেষ্টা করছিলেন এক ব্যক্তি। সেই সময়ে প্রবল জলস্রোত বিদ্যুত-গতিতে ভাসিয়ে নিয়ে যায় ওই ব্যক্তিকে। ঘটনার জেরে তাঁর মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে এবং পুলিশের তরফে তাঁর মৃতদেহও উদ্ধার করেছে বলে খবর। 

পুলিশ প্রশাসন এবং অন্যান্য সমাজকর্মীরাও বিশাল তৎপরতার সঙ্গে বন্যায় বিপর্যস্ত মানুষদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। তৈরি করা হয়েছে একাধিক ত্রাণ শিবিরও। সেখানে আশ্রয় নেওয়া বন্যা বিধ্বস্তদের বিশুদ্ধ পানীয় জল এবং শুকনো খাবার দিয়ে সাহায্য করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। বর্তমানে প্রায় ৩০০০-এরও বেশি মানুষ এইসব ত্রাণ শিবিরে আশ্রয় নিয়েছেন বলে খবর।