শেষবার 'মন কি বাত'- এ তিনি কথা দিয়েছিলেন, তিন- চার মাসের মধ্যেই ফের শ্রোতাদের সামনে হাজির হবেন তিনি। কারণ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আত্মবিশ্বাসী ছিলেন, দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়ে আবারও 'মন কি বাত' শুরু করা যাবে। সেই প্রতিশ্রুতি মতোই রবিবার থেকে আবারও শুর হল প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয় রেডিও শো 'মন কি বাত'। প্রায় চার মাসের বিরতির পরে ফিরে এসে দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানালেন মোদী। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি শেষ বার 'মন কি বাত'-এর প্রথম পর্বের শেষ শো করেছিলেন মোদী। 

এ দিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'সত্যি কথা বলতে, আমি ফিরে আসিনি। বরং আপনারাই আমাকে ফিরিয়ে এনেছেন। আপনারাই আমাকে এখানে বসিয়েছেন এবং আবারও আপনাদের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ করে দিয়েছেন।'

আরও পড়ুন- ছোট স্কার্ট বা খোলামেলা পোশাকে ঢোকা যাবে না লখনউ ইমামবড়ায়, জানাল জেলাশাসক

প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, নির্বাচনের ব্যস্ততার মধ্যেও 'মন কি বাত'-এ হাজির না হতে পারার জন্য শূন্যতা অনুভব করতেন তিনি। নির্বাচন শেষ হওয়ার পর পরই তিনি ফের রেডিও শো শুরু করতে চেয়েছিলেন বলেও দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু মাসের শেষ রবিবার যেহেতু 'মন কি বাত'- এর প্রথম পর্ব শেষ হয়েছিল, তার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই জুনের শেষ রবিবার নতুন পর্ব শুরু করতে বাধ্য হলেন তিনি। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'শেষবার যখন আপনাদের সামনে এসেছিলাম, আমি বলেছিলাম যে তিন- চার মাসের মধ্যে আবারও আমাদের সাক্ষাৎ হবে। এটা আমার আত্মবিশ্বাস নয়, বরং আপনারা যে বিশ্বাসের স্তম্ভ তৈরি করেছেন, তার উপরে ভরসা করে আমি এ কথা বলেছিলাম।'

নির্বাচনের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর কেদারনাথ, বদ্রীনাথ সফর নিয়ে জোর বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। এ দিন 'মন কি বাত'- এ সেই বিতর্ক নিয়েও মুখ খুলেছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, 'নির্বাচনের জয়, পরাজয় নিয়ে চর্চার মধ্যেই আমি কেদার, বদ্রী ধামে গিয়েছিলাম। অধিকাংশ মানুষই এর মধ্যে রাজনীতি খুঁজেছিলেন। কিন্তু আমি নিজের সঙ্গে কিছুটা সময় কাটানোর জন্য ওই যাত্রা করেছিলাম।  'মন কি বাত'-এ অংশ না নিতে না পেরে আমার মধ্যে যে শূন্যতা তৈরি হয়েছিল, গুহায় একা থেকে সেই শূন্যতাই কাটিয়ে ওঠার সুযোগ পেয়েছিলাম।'