মরিশাসবাসী ও সেদেশের সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছে সেইদেশের সুপ্রিম কোর্টের ভবন উদ্বোধরন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ভার্চুয়াল এই অনুষ্ঠানে মরিশাসের প্রধানমন্ত্রী প্রবিন্দ যুগনাথ যৌথভাবে উদ্বোধন মঞ্চ শেয়ার করেন নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে। দুই দেশের সম্পর্ক আরও দৃঢ় ও বন্ধুত্বপূর্ণ করার পরামর্শ দিয়েছেন দুই রাষ্ট্রের প্রধান। নরেন্দ্র মোদী বলেন ভারত ও মরিশাস দুটি দেশই গণতন্ত্র ও বিচার ব্যবস্থার ওপর পূর্ণ আস্থা রাখে।  ভারত মরিশাসের বন্ধুত্ব বর্তমানে চিন বিরোধী মঞ্চকে আরও শক্তিশালী করবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। 

সুপ্রিম কোর্টের ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মরিশাসবাসীদের করোনাভাইসারের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। পাশাপাশি তিনি এদিনের অনুষ্ঠানে তুলে আনেন নিরাপত্তার প্রসঙ্গ। তিনি বলেন  ভারত মহাসাগরে সুরক্ষা ও নিরাপত্তার বাড়ানোর কথা বলেন। তিনি বলেন সাগর এলাকায় প্রতিটি দেশের সুরক্ষা ও প্রবৃদ্ধি বাড়াতে হবে। তিনি বলেন প্রথমে মরিশাসে তিনি প্রথম সাগর সুরক্ষা ও সকলের নিরাপত্তার কথা বলেছিলেন। কারণ মরাশাস ভারত মহাসাগর এলাকায় ভারতের অভিযানের প্রাণ কেন্দ্র। 

এদিনের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী সরাসরি চিনের নাম উত্থাপন করেননি। কিন্তু তিনি বলেছেন ভারত মহাসাগর এলেকায় আফ্রিকান দেশগুলির কৌশলগত অবস্থান প্রসারিত করার ওপর জোর দিয়েছেন। পাশাপাশি তিনি বলেন ইতিহাস দেখেয়েছে উন্নয়ন আর অংশীদারিত্বের নাম করে কী করে একটি জাতি নির্ভারতার অংশীদারিত্বের জন্য বাধ্য করতে থাকে। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন নির্ভারশীল অংশীদারিত্ব তৈরি করে আসছে এমন দেশগুলির মধ্যে ভারতের দৃষ্টিভঙ্গী প্রথম থেকেই আলাদা। যেকোনও দেশের উন্নয়নে ভারত প্রথম থেকেই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য ২০১৬ সালে ভারতের পক্ষ থেকে প্রায় সাড়ে তিনশো মিলিয়ন ডলার আর্থিক প্যাকেজ প্রদান করা হয়েছিল মরিশাসকে। সেই অর্থেই সুপ্রিম কোর্টের ভবন নির্মান হয়েছে। পাশাপাশি ওই অর্থে আগেই একটি হাসপাতাল তৈরি হয়েছিল সেদেশে। সেই হাসপাতালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রাধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।