শুক্রবার ভোরে এনকাউন্টের মৃত্যু হয়েছে হায়দরবাদ গণধর্ষণকাণ্ডের চার অভিযুক্তের। এই ঘটনায় উদ্বেলিত গোটা দেশ। হায়দরাবাদ পুলিশকে শুভেচ্ছরা বন্যায় ভাসিয়ে দিচ্ছেন নিজামের শহরের বাসিন্দারা। এই এই কাউন্টার নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিলেন বিএসপি নেত্রী মায়াবতীও।

হায়দরাবাদ পুলিশকে দেখে শিক্ষা নেওয়া উচিও দিল্লি ও উত্তরপ্রদেশ পুলিশের। এনকাউন্টারে চার অভিযুক্তকে হত্যার পর এমন মন্তব্যই করলেন বিএসপি সুপ্রিমো। 

" উত্তরপ্রদেশে মহিলাদের উপর অপরাধের ঘটনা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। কিন্তু সরকার কোনও পদক্ষেপ না নিয়ে ঘুমোচ্ছে।  হায়দরাবাদ পুলিশের থেকে উদবুদ্ধ হওয়া উচিত উত্তরপ্রদেশ ও দিল্লি পুলিশের। কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় এখন জঙ্গলরাজ চলছে উত্তরপ্রদেশে আর অপরাধীদের এখানে অতিথি হিসাবে গণ্য করা হয়।"

গত সপ্তাহে ২৬ বছরের এক পশুচিকিৎসককে গণধর্ষণ করে পুড়িয়ে মারা হয় হায়দরবাদে। এই ঘটনায়  শুক্রবার হায়দরাবাদ পুলিশ এনকাউন্টর করে হত্যা করে চার অভিযুক্তকে। 

শুক্রবার ভোর সাড়ে ছটা নাগাদ এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার পুনর্নিমাণের জন্য ৪ অভিযুক্তকে ঘটনাস্থলে নিয়ে যাচ্ছিল পুলিশ। সেই সময় অভিযুক্তরা পালানোর চেষ্টা করলে তাদের এনকাউন্টার করে মারা হয়। ঘটনায় ২ পুলিশকর্মীর আহত হওয়ার খবরও পাওয়া গেছে।