দেশের ভাগ্য নির্ধারিত হবে আর ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে। চূড়ান্ত উত্তেজনার আবহ গোটা দেশ জুড়েই। মধ্যেই অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠল অরুণাচল। মঙ্গলবার অরুণাচলের তিরাপ জেলার বোগাপানি গ্রামে আততায়ীর এলোপাথাড়ি গুলিতে খুন হলেন বিধায়ক সহ আরো ১০ জন। ঘটনার ফলে গোটা এলাকায় সন্ত্রাসের আবহ। 

সূত্রের খবর, মঙ্গলবার প্রায় কুড়ি জন আততায়ী ঘিরে ফেলে পশ্চিম খোনসা অঞ্চলের বিধানসভার বিধায়ক তিরং আবো এবং তাঁর সঙ্গীসাথীদের।এলোপাথাড়ি গুলি চালানো হয় তাঁদের দিকে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তিরং আবো ও তাঁর ১০  সঙ্গীর। আততীয়দের প্রত্যেকের হাতে ছিল অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্র। প্রশাসন ঘটনার কথা স্বীকার করেছে।

গোটা ঘটনার নিন্দা করে শোকবার্তা জ্ঞাপন করেছে ন্যাশানল পিপলস পার্টির প্রধান তথা মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাগমা। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে গোটা ঘটনায় নজর দেওয়ার অনুরোধও জানিয়েছেন তিনি। অরুনাচলের মুখ্যমন্ত্রী প্রেমা খান্‌ডুও শোকবার্তা জ্ঞাপন করেছেন।
ঘটনার পর জঙ্গিদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে অসম রাইফেলস ও পুলিশ।  গোটা ঘটনায় সন্ত্রাসের আবহ তৈরি হয়েছে অরুণাচলে। অভিযোগের তির নাকা জঙ্গি এনএসসিএন-এর দিকে। তবে এখনও এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি কোনও জঙ্গি গোষ্ঠী।