Asianet News Bangla

১০০ দিনের রিপোর্ট কার্ড দিলেন অর্থমন্ত্রী, কী কী 'যুগান্তকারী পদক্ষেপ' নিয়েছে মোদী সরকার

  • দ্বিতীয় মোদী সরকার প্রথম ১০০ দিন পূর্ণ করেছে
  • এই মুহূর্তে দেশের অর্থনৈতিক বৃদ্ধি তলানিতে
  • তারপরেও কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী ফের ৫ ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতির স্বপ্ন দেখালেন
  • ১০০ দিনের রিপোর্ট কার্ড পেশ করে দাবি করলেন বেশ কিছু যুগান্তকারী পদক্ষেপ নেওয়ার
Modi government has taken landmark steps in past 100 days says Finance Minister Nirmala Sitharaman
Author
Kolkata, First Published Sep 10, 2019, 7:27 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

দ্বিতীয় মোদী সরকার প্রথম ১০০ দিন পূর্ণ করেছে। দেশের অর্থনৈতিক বৃদ্ধি এই মুহূর্তে গত ছয় বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম। তা সত্ত্বেও মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ ফের ৫ ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতির স্বপ্ন দেখালেন। অর্থ দপ্তরের রিপোর্ট কার্ড পেশ করে দাবি করলেন গত ১০০ দিনে বেশ কিছু যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছে দ্বিতীয় মোদী সরকার।

পরিকাঠামোর উন্নয়নে ১০০ লক্ষ কোটি বিনিয়োগ

নির্মলা সীতারমণ জানান, ভারতের মতো দ্রুত বর্ধমান অর্থনীতির জন্য একটি দৃঢ় পরিকাঠামো প্রয়োজন। আর তার জন্যই দ্বিতীয় মোদী সরকার দেশের উন্নয়নে সবচেয়ে বেশি জোর দিয়েছে। তিনি জানান দেশজুড়ে পরিকাঠামোর উন্নয়নে ১০০ লক্ষ কোটি টাকা বিনিয়োগ বরাদ্দ করেছে অর্থ মন্ত্রক। কওন কোন দিকে উন্নতির দরকার রয়েছে, তা নির্ধারণের জন্য একটি উচ্চ পর্যায়ের টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়েছে। এর ফলে অনে নতুন কর্মসংস্থানও হবে বলে দাবি করেছেন তিনি।

১০টি রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের সংযুক্তিকরণ

১০টি পাবলিক সেক্টর ব্যাঙ্ক বা রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্ককে সংযুক্ত করে মোট চারটি শক্তিশালী ব্যাঙ্কে পরিণত করার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। ক্রেডিটে জোর দিতে ও অর্থনৈতিক বৃদ্ধিকে পুনর্জাগ্রত করতেই এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানান কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। তাঁর মতে একটি ক্রমবর্ধমান অর্থনীতির একটি দৃঢ় ব্যাঙ্কের সমর্থন প্রয়োজন হয়। সংযুক্তিকরণের ফলে ব্যাঙ্কগুলি একটি আরেকটির মাধ্যমে শক্তিশালী হবে বলে দাবি করেছেন সীতারমণ।
     
রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কগুলিতে টাকা ঢালা

সংযুক্তিকরণের ঘোষণার পাশাপাশি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কগুলিতে মোট ৫৫,২৫০ কোটি টাকা অতিরিক্ত মূলধন হিসেবে ঢেলেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

গাড়ি শিল্পের অবস্থা ফেরানো

বেহাল দশা থেকে গাড়ি শিল্পকে রক্ষা করতে সরকারি দপ্তরগুলিকে ইতিমধ্যেই নতুন গাড়ি ক্রয়ের অনুমোদন করা হয়েছে। জিএসটি কমানোর যে দাবি গাড়ি সংস্থাগুলি তুলেছে, তাই নিয়েই গুরুত্ব সহকারে ভাবনা চিন্তা চলছে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios