রেল বাজেট বলে আলাদ করে কিছুর অস্তিত্ব নেই। পৃথক রেল বাজেটের রীতি ইতিমধ্যেই তুলে দিয়েছে মোদী সরকার। একটি সর্বভারতীয় ইংরেজি সংবাদপত্রের খবর অনুযায়ী, দ্বিতীয় মোদী সরকারের প্রথম বাজেটে মূলত রেলের আধুনীকিকরণ এবং নিরাপত্তা বৃদ্ধির উপরেই জোর দেওয়া হতে পারে। 

সূত্র উদ্ধৃত করে দাবি করা হচ্ছে, দেশের রেল স্টেশনগুলিতে যাত্রী নিরাপত্তা আরও বাড়াতে সিসিটিভি ক্যামেরা বসানোর জন্য এবার বাজেটে ঘোষণা হতে পারে। এই খাতে কমবেশি ২৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হতে পারে। নির্ভয়া ফান্ড থেকেই এই টাকা বরাদ্দ করতে পারে সরকার। 

আরও পড়ুন- ৫টি পয়েন্ট, আর এতেই আজ নজর থাকবে সাধারণ বাজেটের

এর পাশাপাশি রেলের পরিকল্পনা মতো রেল লাইন বরাবর প্রহরীযুক্ত লেভেল ক্রসিং তুলে দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সড়ক এবং পরিকাঠামো নির্মাণ ফান্ড থেকে ১২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ হতে পারে। রেলের দাবি অনুযায়ী, এই মুহূর্তে দেশে কোনও প্রহরীবিহীন লেভেল ক্রসিং নেই। রেলের লক্ষ্য , ২০২৪ সালের মধ্যে সোনালি চতুর্ভুজ এবং তার সংযোগকারী রাস্তাগুলির উপরে থাকা ২৫৬৮টি লেভেল ক্রসিং তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে রেল। 

লেভেল ক্রসিংয়ের বদলে সেখানে ওভারব্রিজ বা আন্ডারপাশ গড়ার পরিকল্পনা নিয়েছে রেল। দেশের মোট ১৯ হাজার প্রহরীযুক্ত লেভেল ক্রসিং তুলে দেওয়ার জন্য ৫০ হাজার কোটি টাকা খরচ হবে। এর জন্য রাজ্যগুলিকে জমি অধিগ্রহণ করে দিতে হবে।