এই মুহূর্তে তিনি ভারতের শিল্পজগতের একচ্ছত্র রাজা। যা ছোঁন তাতেই ফলে সোনা। কিন্তু মুকেশ অম্বানির রাজনৈতিক বিশ্বাস কোন দিকে? তিনি কি গেরুয়া ঘেসা, নাকি কংগ্রেসী। নকি শিবসেনার উগ্রতাতেই তাঁর বিশ্বাস? রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের কাছে এই ধাঁধার এখনও কোনও উত্তর নেই। তাঁর ভাই অনিল অম্বানির রাজনৈতিক ভাবধারা সহজেই অনুমেয়। কিন্তু অনেক চেষ্টা করেও অম্বানিদের বড়ভাইকে ডিকোড করতে পারেননি বিশ্লেষকরা।

বৃহস্পতিবার যেমন স্ত্রী নীতা অম্বানি ও পুত্র অনন্ত অম্বানিকে নিয়ে উদ্ধব ঠাকরের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের মঞ্চ আলো করে থাকতে দেখা গেল তাঁকে। শিবসেনার তরফে রাজ্যের ও দেশের বহু বিশিষ্ট মানুষ ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। মঞ্চে একেবারে প্রথম সারিতেই বসেছিলেন মুকেশ ও নীতা অম্বানি। শপথগ্রহণের পর মুকেশ অম্বানিকে দেখা যায় উদ্ধব ঠারের পুত্র তথা শিবসেনার তরুণ নেতা আদিত্য ঠাকরের সঙ্গে আলিঙ্গন করতে।

অথচ তার আগে নিচে বসে তিনি গল্প করছিলেন রাজ্যের বিজেপি নেতা তথা সদ্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ-এর সঙ্গে।

এর আগে চলতি বছরের শুরুতে মুকেশ অম্বানিকে দেখা গিয়েছিল কংগ্রেস প্রার্থীর হয়ে প্রচার করতে। লোকসভা নির্বাচনের সময় মুম্বই-এ কংগ্রেস প্রার্থী মিলিন্দ দেওয়ার হয়ে প্রচার করেন রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ-এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টর। সেইসময় তাঁকে খোলাখুলি কংগ্রেসের হয়ে প্রচার করতে দেখে অনেকেই অবাক হয়েছিলেন। কারণ তার আগে তাঁর ভাই অনিল অম্বানি-কে নিয়মিত আক্রমণ করেছিলেন তখনকার কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।