১৩ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণ করল তার সোশ্যাল মিডিয়া ফ্রেন্ড। অভিযোগ মধ্য মুম্বইয়ের আগ্রিপদার বাসিন্দা ওই কিশোরীকে অপহরণ করে তার ২২ বছরের ফেসবুক ফ্রেন্ড। এরপর কিশোরীর ওপর চালান হয় পাশবিক অত্যাচার। এই ঘটনায় ইতিমধ্যে মূল অভিযুক্ত ২২ বছরের ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। পাশাপাশি রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশে পৃথক অভিযনা চালিয়ে যুবকের আরও ৪ সাগরেদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। উদ্ধার করা হয়েছে নির্যাতিতাকেও।

আরও পড়ুন: নতুন বিপদের কথা জানালেন বিজ্ঞানীরা, সুস্থ হলেও রোগীর মস্তিষ্কের মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে করোনা

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত পয়লা জুলাই থেকে নিখোঁজ ছিল ওই কিশোরী। আশেপাশের খোঁজ চালিয়ে সন্ধান না পাওয়ায় তার মা স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। 

তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, নাবালিকার সঙ্গে ফেসবুকে মূল অভিযুক্তের যোগাযোগ ছিল। এরপরেই ওই যুবকের সন্ধান পেতে রাজস্থানের ঝালওয়াল এবং মধ্যপ্রদেশের রায়গড়ে বিশেষ দল পাঠায় মুম্বই পুলিশ। উপরোক্ত দুটি জায়গাতে তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ ৫ জনকে গ্রেফতার করে ও নির্যাতিতাকে উদ্ধার করে। 

আরও পড়ুন: মোদীর লাদাখ সফর নিয়ে মুখ খুললেন শরদ পাওয়ার, কংগ্রেসকে বেকায়দায় ফেলে তুলনা নেহেরুর সঙ্গে

পুলিশি জেরায় মূল অভিযুক্ত স্বীকার করে, সহযোগীদের সাহায্যে সে ওই কিশোরীকে অপরহণ করে এবং লকডাউনের মধ্যেই তাকে রাজস্থানে নিয়ে যায়।  কিশোরীকে অপহরণ করে একটি প্রাইভেট গাড়িতে তুলে রাজস্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। এদিকে লকডাউনের মধ্যে কীভাবে ওই গাড়িটি পথে বিনা বাধায় গন্তব্যে পৌঁছল সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। এই বিষয়টিও তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। মূল অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে পক্সো আইনে মামলা রুজু করেছে পুলিশ।