অযোধ্যায় রামমন্দির হচ্ছে, কিন্তু দেশের বিভিন্ন প্রান্তে 'সীতা'দের বিরুদ্ধে অপরাধের ঘটনায় লাগাম লাগার কোনও আশাই দেখা যাচ্ছে না। দিল্লির নির্ভয়া কাণ্ডের পর ভারতে নারীদের বিরুদ্ধে অপরাধের জন্য কঠোর আইন প্রণয়ন করা হয়েছিল। হায়দারাবাদের ঘটনার পর, আরও কঠোরতর আইন আনার দাবি উঠছে। এরমধ্যেও স্রেফ অন্য এক পুরুষের সঙ্গে গল্প করার 'অপরাধে', প্রেমিকের চড়ে মৃত্যু হল এক মহিলার।

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বইয়ের মনখুর্দ থানা এলাকায়। পুলিশ জানিয়েছে, নিহতের নাম সীতা প্রধান। ৩৫ বছর বয়সী সীতাকে সোমবার তাঁর প্রেমিক রাজু পুজারি ইয়ালাপ্পা অন্য এক পুরুষের সঙ্গে কথা বলতে দেখেই তেলেবেগুনে চটে যায়। প্রকাশ্য রাস্তাতেই তীব্র বাদানুবাদের মধ্য়ে প্রেমিকাকে সজোরে থাপ্পর মারে সে।  

মনখুর্দ থানার পুলিশ জানিয়েছে,  থাপ্পর মারার সঙ্গে সঙ্গে সীতা মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। সংজ্ঞাহীন অবস্থাতেএই স্থানীয় লোকজন একটি গাড়িতে করে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু চিকিৎসকরা জানান, ততক্ষণে সীতা প্রধান আর বেঁচে নেই। মনখুর্দ থানায় সিনিয়র ইন্সপেক্টর নীতিন বোবদে জানিয়েছেন, তাঁরা আপাতত একটি 'দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যু-র রিপোর্ট' (এডিআর) দায়ের করা হয়েছে।

তবে স্থানীয় বাসিন্দারাই রাজুকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে। আপাতত পুলিশ হেফাজতেই রয়েছে সে। এখন সীতা প্রধানের পোস্টমর্টেম রিপোর্টের অপেক্ষা করা হচ্ছে। পুলিশ জানিয়েছে, ময়না তদন্তের রিপোর্টের ভিত্তিতেই তারা পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে। বর্তমানে রাজুকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।