কাশ্মীরের পরিস্থিতি ক্রমশই জটিল থেকে জটিলতর হয়ে চলেছে। রবিবার রাত থেকেই কাশ্মীরে গৃহবন্দি অবস্থায় রয়েছেন কাশ্মীরের প্রাক্তন দুই মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা এবং মেহবুবা মুফতি। কাশ্মীরে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা। বন্ধ রাখা হয়এছে স্কুল-কলেজ-অফিস কাছারিও। 

 

এরই মধ্যে আজ সকালে নিজের বাসভবনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মন্ত্রীসভার বৈঠকে বসেছেন নরেন্দ্র মোদী। এদিন মন্ত্রীসভার সঙ্গে বৈঠকের আগে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকে বসেন তিনি। ইতিমধ্যেই সংসদ ভবনে এসে উপস্থিত হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং-সহ বিরোধী দলের প্রতিনিধিরাও। আর কিছুক্ষণের মধ্যেই সংসদে বক্তৃতা দেবেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ।  

 

কাশ্মীরের পরিস্থিতি প্রসঙ্গে কী সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র তা নিয়ে বারবার জানতে চেয়েছেন বিরোধীরা। কিন্তু কেন্দ্রের তরফে তার কোনও সদুত্তর পাওয়া যায়নি। আজ সকাল ৬টা থেকে জম্মু ও কাশ্মীরে জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। রাত-ভোর শহরের বিভিন্ন রাস্তায় টহল দিচ্ছে সশস্ত্র বাহিনী। শ্রীনগরে প্রবেশ ও বেরোনোর পথে ব্যারিকেড করে চালানো হচ্ছে নাকা তল্লাশি।