দুদিনের সফরে বুধবার রাশিয়া গিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদী। সেখানে ভ্লাদিভোস্টকে আয়োজিত পঞ্চম ইস্টার্ন ইকোনমিক ফোরাম এবং ২০তম ভারত-রাশিয়া বার্ষিক দ্বিপাক্ষিক সম্মেলনে অংশ নিয়েছিলেন। শিল্পক্ষেত্রে ভারত- রাশিয়া জোটকে কেন্দ্র করে দুই দেশের মধ্যেকার সম্পর্ককে মজবুত করাই ছিল এই সফরের মূল উদ্দেশ্য। 

সেখানে একটি ফটো সেশন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্য আলিশান সোফার ব্যবস্থা করা হয়েছিল, কিন্তু তিনি সেইসব সোফায়ে বসতে না চেয়ে তাঁর জন্য সাধারণ চেয়ার নিয়ে আসার জন্য অনুরোধ করেন। আলাদা করে না বসে সেই সেখানে আগত অতিথিদের সঙ্গে এক আসনে বসতে চেয়েছিলেন মোদী। 

রেলমন্ত্রী পীযুষ গয়াল সম্প্রতি একটি ভিডিও টুইট করেছেন তাঁর টুইটার হ্যান্ডেল থেকে। যেখানে দেখা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রী মোদী কিছু একটা বলছেন আর তাই কথামতোই সেই ইভেন্টের সঙ্গে লোকজন সেই সোফা সরিয়ে নিয়ে গিয়ে তাঁকে এনে দেওয়া একটা সাধারণ চেয়ার। সেখানেই বসেই ফটো সেশন করেন মোদী। 

 

ভিডিওটি টুইট করে পীযুষ গয়াল লেখেন, মোদীর সরলতা দেখা গেল আজ। তাঁর জন্য বিশেষ বসার আয়োজন করা হলেও তিনি রাশিয়ারবাকি অতিথিদের সঙ্গে একসঙ্গে বসার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ভিডিওটি ব্যপকভাবে শেয়ার হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটিজেনরা মোদীর এই সিদ্ধান্তের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। 

প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তে সরলতার নিদর্শন পেয়েছেন সকলে। কারওর কথায়, প্রধানমন্ত্রীর এই সারল্য তাঁকে সারা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে শ্রদ্ধার এবং সম্মানীয় ব্যক্তি হিসাবে মর্যাদা দেয়।