বাজেটে নতুন শিক্ষানীতি ঘোষণা করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। শিক্ষাক্ষেত্রে বরাদ্দ করা হল প্রায় এক লক্ষ কোটি টাকা। শিক্ষায় প্রত্য়ক্ষ বিদেশি বিনিয়োগের দরজা খুলে দেওয়া হল।

শনিবার লোকসভায় ২০২০-২১ সালের বাজের প্রস্তাব পেশ করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। বেলা এগারোটানাগাদ তিনি লোকসভায় ঢুকলেন 'বহিখাতা' সঙ্গে করে। কর ব্য়বস্থার সরলীকরণ থেকে শুরু করে নানারকম ঘোষণার মাঝেই শোনা গেল শিক্ষাক্ষেত্রে নতুন নীতির কথা। লোকসভায় এদিন অর্থমন্ত্রী নতুন শিক্ষানীতি ঘোষণা করেন। সেখানে তিনি আরও বেশি এডুকেশন লোন বা শিক্ষা ঋণ দেওয়ার জন্য় স্টেট ব্য়াঙ্ক অব ইন্ডিয়াকে নির্দেশ দেন।  জোর দেওয়া হয় চাকরিভিত্তিক শিক্ষা বা বৃত্তিমূলক শিক্ষায়। পিছিয়ে পড়া পড়ুয়াদের জন্য় গুণমানের শিক্ষাব্য়বস্থা ঘোষণা করা হয়। অনলাইনে স্নাতকোত্তর কোর্সের কথাও শোনা যায় অর্থমন্ত্রী ভাষণে। বলা হয়, এবার থেকে স্য়াটে বসতে পারবেন এশিয়া-আফ্রিকার পড়ুয়ারা।

সেইসঙ্গে মেডিকেল শিক্ষায় শিক্ষকদের অভাবের কথা স্বীকার করে নিয়ে বলা হয়, সেক্ষেত্রে বিশেষ ব্য়বস্থা নেওয়া হবে।  স্কিল ইন্ডিয়া প্রকল্পে ৩ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করার প্রস্তাব দেওয়া হয় বাজেটে।