ফের ফাঁসি পিছিয়ে যেতে পারে নির্ভয়া গণধর্ষণ ও হত্যা মামলার  চার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামির। এমনটাই আশঙ্কা করছেন নির্ভয়ার মা আশাদেবী ও তাঁদের পরিবার। বুধবার, চার আসামির মৃত্যুদণ্ড খারিজ করতে চেয়ে দিল্লির এক আদালতে আবেদন করেছেন তাদের আইনজীবী। আবেদনে বলা হয়েছে, তাদের একজনের দ্বিতীয় প্রাণভিক্ষার আবেদন এখনও বিচারাধীন। তাই এখনই তাদের ফাঁসি দেওয়া যাবে না।

বুধবার এই আবেদনের ভিত্তিতে অতিরিক্ত দায়রা আদালতের বিচারক ধর্মেন্দ্র রানা তিহার জেল কর্তৃপক্ষ ও দিল্লি পুলিশকে একটি নোটিশ পাঠিয়েছেন। বৃহস্পতিবার ফাঁসি কার্যকর হওয়ার নির্ধারিত দিনের একদিন আগে এই মামলার শুনানি হবে। সেখানে আসামি পক্ষের এই আবেদনের জবাব দিতে বলা হয়েছে তিহার জেল কর্তৃপক্ষ ও পুলিশ-কে। যদি দেখা সত্যিই আইনি প্রক্রিয়া এখনও চলছে, তাহলে সেই ক্ষেত্রে এই হাই প্রোফাইল মামলার সাজা কার্যকর হওয়া ফের পিছিয়ে যেতে পারে।

বস্তুত চার আসামির অন্যতম অক্ষয় সিং ঠাকুর মঙ্গলবারই রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দ-এর কাছে তার প্রাণভিক্ষার দ্বিতীয় আবেদন করেছেন। একই দিনে অপর আসামি পবন গুপ্ত ফের তিনি নাবালক বলে দাবি করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছেন। এর আগে এই একই আবেদনের ভিত্তিতে হওয়া মামলা খারিজ করে দিয়েছিল আদালত। এবার আদালতের সেই সিদ্ধআন্ত পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছে পবন গুপ্তা। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত চার আসামি - মুকেশ সিং (৩২), পবন গুপ্তা (২৫), বিনয় শর্মা (২৬) এবং অক্ষয় সিং (৩১)-কে ২০ মার্চ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৫ টায় ফাঁসি দেওয়ার কথা।