নির্ভয়া কাণ্ডের আরও এক আসামি অক্ষয়কুমার সিং-এর প্রাণভিক্ষার আবেদন-ও খারিজ করে দিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দ। বুধবার রাতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের এক কর্মকর্তারা এই খবর জানালেন। দিনকয়েক আগেই অক্ষয় রাষ্ট্রপতির কাছে এই আবেদন জানিয়েছিল, যার জেরে পিছিয়ে গিয়েছিল চার আসামির ফাঁসি। এর আগেই রাষ্ট্রপতি এই মামলার অন্য দুই আসামি, মুকেশ সিং ও বিনয় কুমার শর্মা-র আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছিলেন।

মুকেশ, বিনয় এবং অক্ষয় - তিন আসামিরই প্রাণভিক্ষার আবেদন রাষ্ট্রপতি প্রত্যাখ্যান করেছেন। তবে পবন এখনও এই আবেদন দায়ের করেনি। পবন ছাড়া বাকি তিন আসামি ইতিমধ্যে সুপ্রিম কোর্টেও কিউরেটিভ আপিল বা করুণার আবেদন করেছিল, যা আদালত খারিজ করে দিয়েছে। কাজেই পবন শর্মার হাতে এখনও দুটি আইনি প্রতিকার বাকি রয়েছে।

এদিন, দিল্লি হাইকোর্ট জানিয়ে দিয়েছে, চারজন আসামির ফাঁসি আলাদা আলাদা ভাবে নয়, একসঙ্গেই কার্যকর করতে হবে। কাজেই পবনের আইনি প্রতিকার ব্যবহার করে ফাঁসির দিন আরও পিছিয়ে দিতে পারে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত অপরাধীরা। তবে দিল্লি হাইকোর্চের বিচারপতি সুরেশ কুমার কেইট এদিন রায় ঘোষণার সময় আসামিদের সমস্ত আইনি প্রতিকার সামনের সাত দিনের মধ্যে নিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেন। তারপর কর্তৃপক্ষকে আইন অনুযায়ী কাজ করতে বলা হয়েছে। তবে এই আদেশ আদালত দিতে পারে কিনা তা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে।