কোভিড-১৯ রোগীদের মৃত্যুর ঝুঁকি কমাতে কনভ্যালসেন্টস প্লাজমা থেরাপি বা এইচআইএম প্রয়োগ করা হচ্ছে বিশ্বের অনেক জায়গাতেই। এতে করে করোনা পুরোপুরি না সেরে গেলেও, গুরুতর আক্রান্ত ব্যক্তিদের সুস্থ হয়ে উঠতে এই পদ্ধতি সাহায্য় করে এমনটাই মনে করেন অনেক গবেষক। কিন্তু, ইদানিংকালে প্লাজমা থেরাপি ব্যবহার করেও অনেকক্ষেত্রেই বাঁচানো যাচ্ছে না রোগীদের। তাহলে কি এই পদ্ধতি কাজ দিচ্ছে না? দেখা যাক কী বলছে দিল্লির এইএমএস হাসপাতালের ডাক্তার-গবেষকদের বিশ্লেষণ -

প্লাজমা থেরাপি হল কোভিড-১৯ রোগ থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা কোনও ব্যক্তির রক্ত ​​থেকে অ্যান্টিবডি গ্রহণ করে তা কোনও চিকিৎসাধীন রোগীর রক্তে স্থানান্তরিত করা। মনে করা হয়, যাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম, তাদের ক্ষেত্রে এইভাবে সংক্রামক রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য শরীরে প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে চালু করা যায়। তবে এইমসের ডিরেক্টর ডাক্তার রণদীপ গুলেরিয়া বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, তাঁদের পর্যবেক্ষণ বলছে কনভ্যালসেন্টস প্লাজমা থেরাপি-তে কোভিড রোগীদের মৃত্যুহার কমানোর ক্ষেত্রে কোনও উপকার ধরা পড়েনি।

তিনি জানিয়েছেন এইমস হাসপাতালে ভর্তি থাকা ৩০ জন রোগীকে এলোমেলোভাবে বেছে নেওয়া হয়েছিল এই গবেষণার জন্য। পরীক্ষার সময় এঁদের মধ্যে একদল রোগীকে উন্নতমানের চিকিত্সার পাশাপাশি কনভালসেন্ট প্লাজমা থেরাপি দেওয়া হয়েছিল। অন্য দলের রোগীদের শুধু উন্নত মানের চিকিত্সা দেওয়া হয়। কিন্তু দুই দলের রোগীদের মধ্যে হতাহতের সংখ্যা একই এসেছে। প্লাজমা তেরাপি থেরাপি পাওয়া রোগীদের অবস্থার মধ্যে খুব বেশি 'ক্লিনিকাল উন্নতি' ঘটেনি।

তবে তাঁদের এই বিশ্লেষণ একেবারেই ছোট আকারের এবং অন্তর্বর্তীকালীন বিশ্লেষণ বলে জানিয়েছেন ডাক্তার গুলেরিয়া। তিনি জানিয়েছেন, কোনও বিশেষ গোষ্ঠীর মানুষ প্লাজমা থেরাপি থেকে উপকৃত হতে পারেন কি না তা নিশ্চিতভাবে জানার জন্য বড় আকারে বিশদ মূল্যায়নের প্রয়োজন। তবে প্লাজমা থেরাপি ব্যবহারের ক্ষেত্রে তা ওই রোগীর জন্য সুরক্ষিত কি না এবং সেই প্লাজমায় কোভিড -১৯'এর পর্যাপ্ত পরিমাণ অ্যান্টিবডি আছে কি না তা অবশ্যই দেখে নিতে হবে।

মরণাপন্ন কোভিড রোগীদের ক্ষেত্রে প্লাজমা থেরাপি ব্যবহার করলেই যে তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন, এমন প্রমাণ নেই। এইমস-এর গবেষকদের ভাষায়, 'কনভ্যালসেন্টস প্লাজমা থেরাপি কোনও জাদু বুলেট নয়'। তবে, তারপরেও তাঁরা বলছেন, রোগের প্রাথমিক পর্যায়ে এই পদ্ধতি ব্যবহার করা যেতে পারে। হয়তো একদল নির্দিষ্ট বৈশিষ্ট্যযুক্ত রোগী আছেন, যাঁরা প্লাজমা থেকে উপকৃত হতে পারেন। এই বৈশিষ্ট্যগুলি এখনও গবেষকরা জানতে পারেননি। বিশদ গবেষণায় এই বৈশিষ্টগুলিরও সন্ধান চালানো হচ্ছে।