মধ্য এশিয়ার দেশগুলির সঙ্গে কূটনৈতিক সুসম্পর্ক স্থাপন ভারতের অগ্রাধিকার-এনএসএ অজিত দোভাল

| Dec 06 2022, 10:47 PM IST

Ajit Doval

সংক্ষিপ্ত

এনএসএ অজিত ডোভাল বলেছেন যে আমরা আন্তর্জাতিক সম্পর্ক এবং ভবিষ্যত সম্পর্কে দুর্দান্ত শুরু হওয়া প্রত্যক্ষ করতে চলেছি। একটি শান্তিপূর্ণ, নিরাপদ ও সমৃদ্ধ মধ্য এশিয়ার সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক আরও মজবুত হতে চলেছে।

রাজধানী দিল্লিতে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা, নিরাপত্তা পরিষদের সচিবদের প্রথম ভারত-মধ্য এশিয়া বৈঠকের আয়োজন করা হয়। এনএসএ অজিত ডোভাল বৈঠকে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের স্বাগত জানান। জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা, নিরাপত্তা পরিষদের সচিবদের প্রথম ভারত-মধ্য এশিয়া বৈঠকে, এনএসএ অজিত ডোভাল বলেছিলেন যে ভারতের আমন্ত্রণ গ্রহণ করা ও আমাদের উপহার গ্রহণ করার মাধ্যমে আপনারা ভারতকে সম্মান দেখিয়েছেন। এটি দুই তরফের আলোচনাকে সমৃদ্ধ করে। মধ্য এশিয়া আমাদের বর্ধিত প্রতিবেশী। ভারত ছাড়াও মধ্য এশিয়ার দেশগুলো যেমন কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান, তাজিকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান, উজবেকিস্তানের শীর্ষ প্রতিনিধিরা এই বৈঠকে যুক্ত ছিলেন। বিশেষ বিষয় হলো আজ এসব দেশের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কের শুরুর ৩০ বছর পূর্ণ হচ্ছে।

এনএসএ অজিত ডোভাল বলেছেন যে আমরা আন্তর্জাতিক সম্পর্ক এবং ভবিষ্যত সম্পর্কে দুর্দান্ত শুরু হওয়া প্রত্যক্ষ করতে চলেছি। একটি শান্তিপূর্ণ, নিরাপদ ও সমৃদ্ধ মধ্য এশিয়ার সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক আরও মজবুত হতে চলেছে। মধ্য এশিয়ার সাথে যোগাযোগ ভারতের জন্য একটি প্রধান কাজ। আমরা এই এলাকায় সহযোগিতা, বিনিয়োগ এবং যোগাযোগ তৈরি করতে প্রস্তুত।

Subscribe to get breaking news alerts

ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল বলেছেন যে আফগানিস্তান আমাদের সবার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। তাৎক্ষণিক অগ্রাধিকার এবং এগিয়ে যাওয়ার পথ সম্পর্কে ভারতের উদ্বেগ এবং সংশ্লিষ্ট উদ্দেশ্যগুলি আমাদের সবার সামনে রয়েছে। এনএসএ বলেছেন যে আফগানিস্তান সহ এই অঞ্চলে জঙ্গি নেটওয়ার্কের অস্তিত্বও গভীর উদ্বেগের বিষয়।

অর্থায়ন হচ্ছে সন্ত্রাসবাদের প্রাণশক্তি এবং সন্ত্রাসবাদের অর্থায়নের বিরুদ্ধে লড়াই করা আমাদের সবার জন্য অগ্রাধিকার হতে হবে। জাতিসংঘের সকল সদস্যকে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িত সত্ত্বাকে সহায়তা প্রদান থেকে বিরত থাকতে হবে।

এর আগে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল দিল্লিতে ইন্ডিয়া ইসলামিক কালচারাল সেন্টারে ভারত ও ইন্দোনেশিয়ায় পারস্পরিক শান্তি ও সামাজিক সম্প্রীতির সংস্কৃতির প্রচারে উলামাদের ভূমিকা সম্পর্কে তার মতামত দেন। এই অনুষ্ঠানে ডোভাল বলেন, চরমপন্থা ও সন্ত্রাসবাদ ইসলামের অর্থের পরিপন্থী। একইসঙ্গে, গণতন্ত্রে ঘৃণ্য বক্তব্য ও ধর্মের অপব্যবহারের কোনো স্থান নেই।

অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিতে গিয়ে ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল বলেছেন যে গণতন্ত্রে ঘৃণামূলক বক্তব্য এবং ধর্মের অপব্যবহারের কোনো স্থান নেই। তিনি বলেন, ধর্মের অপব্যবহার আমাদের সবার বিরুদ্ধে এবং ইসলাম এটা অনুমোদন করে না। তিনি বলেন, যে কোনো লক্ষ্যের জন্য চরমপন্থা, মৌলবাদ এবং ধর্মের অপব্যবহার নিযুক্ত করা হয় তা কোনোভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। এটা ধর্মের বিকৃতি, যার বিরুদ্ধে আমাদের সবার আওয়াজ তুলতে হবে।