ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গিয়েছে ৪০০ গণ্ডি। লাফিয় লাফিয় বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। রাজধানী দিল্লি, বাণিজ্যনগরী মুম্বই, কলকাতা, বেঙ্গালুরু সবখানেই মিলেছে করোনা রোগী। এই অবস্থায় গোষ্ঠী সংক্রমণ এড়াতে দেশের ৭৫টি জেলাকে লকডাউন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারয লকডাউন করা হচ্ছে দিল্লি, মুম্বই, চেন্নাই, কলকাতা, বেঙ্গালুরু, হায়দরবাদ সহ দেশের সবকটি বড় শহরকেই। এই অবস্থায়  লকডাউন এলাকাগুলিতে নিজের ক্যাব পরিষেবার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল ওলা ও উবার।

ইমেইল করে উবার নিজের গ্রাহকদের জানিয়েছে, "সরকারের নির্দেশিকা অনুযায়ী আমরা আপনার শহরে সাময়িক ভাবে উবার পরিষেবা বন্ধ রাখছি। পরবর্তী নির্দেশিকা না পাওয় পর্যন্ত এই পরিষেবা মিলবে না।"

আজ থেকে লকডাউনে কলকাতা, করোনা মোকাবিলায় যথেষ্ট নয়, বলছে 'হু'

মুম্বইতে করোনায় আক্রান্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩, ঘুরতে এসে চিরনিদ্রায় আরও এক বিদেশি

লকডাউন নিয়ে রাজ্যগুলিকে কড়া নির্দেশ , 'নিজেকে বাঁচান', ট্যুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী

মেইলে উবার আরও উল্লেখ করেছে, "আমরা বিষয়টিকে হালকা ভাবে নিচ্ছি না। আপনারাও স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া নির্দেশিকা মেনে চলুন।"

ওলাও নিজের গ্রাহকদের কাছে অনুরোধ জানিয়েছে, প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে বের না হওয়ার জন্য। ওলার বক্তব্য, " সরকারের নির্দেশ মেনে বাড়িতে থাকুন, প্রয়োজন ছাড়া  বের হবেন না। কোভিড ১৯ বিরুদ্ধে দেশের লড়াইয়ে সামিল হয়ে আমরাও শহরগুলিতে নূন্যতম যানবাহন যাতে চলে সেদিকে নজর রাখব। " তবে লকডাউন হওয়া শহর গুলিতে তাদের পরিষেবা পাওয়ার সম্ভবনা কম বলেই গ্রাহকদের জানিয়ে দিয়েছে ওলা কর্তৃপক্ষ। 

 

এর আগে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ যাতে আর ছড়িয়ে না পড়ে তার জন্য মেট্রো শহরগুলিতে নিজেদের শেয়ারিং পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ওলা-উবার। তবে লকডাউন না হওয়া এলাকাগুলিতে এখনও তাদের পরিষেবা মিলবে বলেই জানাচ্ছে অ্যাপ ভিত্তিক এই দুটি ক্যাব পরিষেবা প্রধানকারী সংস্থা।