করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিরুদ্ধে ভারত লড়াই করছে ২১৩ দিন। ২৫ অক্টোবর কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭৮ লক্ষ ৬৪ হাজার ৮১১। এখনও পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষেরও বেশি মানুষের। কিন্তু তারই মধ্যে একটি সুখবর রয়েছে। উৎসবের মধ্যে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হওয়া মানুষের সংখ্যা ৯০ শতাংশের গন্ডি ছুঁয়েছে। কারণ স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী এদিন দেশে সুস্থ হওয়া মানুষের মোট সংখ্যা ৭০ লক্ষ ৭৮ হাজার ১২৩। 


কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ হাজারেরও বেশি মানুষ। মৃত্যু হয়েছে ৫৭৮ জনের। গত সপ্তাহে দৈনিক আক্রান্তের গড় অনেকটাই স্বস্তি দিয়েছিল।তবে সুস্থতার হারের দিকে তাকিয়ে বলা যেতেই পারে ভারত একটি নতুন মাইলস্টোন পার করেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ৫০ হাজারেও বেশি মানুষ।  দেশে বর্তমানে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৬ লক্ষ ৬৮ হাজার ১৫৪। মন্ত্রকের তরফ থেকে আরও বলা হয়েছে দেশে অ্য়াক্টিভ কেসের সংখ্যা গত তিন দিন ধরে সাত লক্ষের নিচে রাখা সম্ভব হয়েছে। 

আবারও প্রদীপ জ্বালাতে আবেদন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর, এবার দেশের সেনা জওয়ানদের জন্য .

সিন্ধু সভ্যতার বাসিন্দাদের ডায়েটে ছিল পনির আর দুধের খাবার, বৈজ্ঞানিক প্রমাণ দিলেন বাঙালি বিজ্ঞানী ...
করোনা আক্রান্ত রাজ্যগুলির ক্রমতালিকায় এখনও পর্যন্ত শীর্ষ রয়েছে মহারাষ্ট্র। পরবর্তী তিন রাজ্য হল অন্ধ্র প্রদেশ, কর্ণাটক আর তামিলনাড়ু। দৈনিক সংক্রমণে সব থেকে এগিয়ে রয়েছে কেরল। গত ২৪ ঘণ্টা আক্রান্তের সংখ্যা ৮ হাজারেরও বেশি। মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত সংখ্যা ৬ হাজারের বেশি। অন্যদিকে দিল্লি ও পশ্চিমবঙ্গে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার। একই অবস্থা কর্ণাটকে। দৈনিক সংক্রমণে কিছুটা স্বস্তি দিয়েছে উত্তর প্রদেশকে। মহামারিকে হারাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর মন কি বাত অনুষ্ঠানেও সতর্ক করেছেন দেশের নাগরিকদের। তিনি বলেছেন এখনও করোনাভাইরাস সংক্রমণের ভয় রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে মহামারিকে হারাতে নিরাপদ শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার পাশাপাশি মাস্কের ব্যবহার করতে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।