বৃহস্পতিবার সন্ধ্যে ৬টা ৩০ মিনিটে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে স্বামী বিবেকানন্দের একটি মূর্তি উন্মোচন করবেন। বিশ্ববিদ্যলয়ের পক্ষ থেকে একটি আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে জানান হয়েছে স্বামী বিবেকানন্দের ওপর একটি কর্মসূচির মাধ্যমে মূর্তিটির উন্মোচন করা হবে। এই অনুষ্ঠানে হাজির থাকবেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী।  

জেএনইউ-র উপাচার্য এম জগদেশ কুমার জানিয়েছেন স্বামী বিবেকনন্দ দেশের অন্যতম একজন বুদ্ধিজীবী। আধ্যাত্মিক নেতাদের মধ্যেও তিনি অন্যতম। তিনি স্বাধীনতা আন্দোলনেরও পথিকৃৎ ছিলেন। দেশের উন্নতি সম্প্রীতি নিয়ে তাঁর কাজ আজও মনে রেখেছেন দেশের তরুণরা। শান্তির বার্তা দিয়ে ভারতকে অগ্রণী ভূমিকায় তিনি নিয়ে গিয়েছিলেন। আর সেইকারণেই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সহায্যে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে স্বামী বিবেকানন্দের মূর্তি স্থাপন করা হচ্ছে। 

স্থাপনের আগে থেকেই এই বিবেকানন্দের মূর্তিটি নিয়ে বেশ কয়েকটি বিতর্ক তৈরি হয়েছে। এই মূর্তিটির নির্মাণকাজ শুরু হয়েছিল ২০১৮ সালে। তা ভাঙচুরও করা হয়েছিলষ গতবছর এই মূর্তি সংলগ্ন এলাকায় বেশ কিছু আপত্তিকর মন্তব্য লেখার অভিযোগ উঠেছিল। মূর্তিটি এখনও গেরুয়া একটি কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছে। এটি রয়েছে প্রশাসনিক ব্লকে। বিশ্ব বিদ্যালয়ের এক্সিকিউটিভ কাউন্সিল ২০১৭ সালে মূর্তিটি স্থাপন করার অনুমতি দিয়েছিল। বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা এই মূর্তিটি নিয়ে বারবার বিশ্ববিদ্যালয়ের এক্সিকিউটিভ কাউন্সিলকে আক্রমণ করেছেন। প্রশ্ন তুলেছে মূর্তি স্থাপনের জন্য ব্যবহৃত তহবিল নিয়েও। প্রশাসন অবশ্য জানিয়েছে এ পড়ুয়ারাই মূর্তি তৈরির জন্য অর্থ সাহায্য করেছে।