প্রেম দিবসেই জন্মেছিলেন তিনি। এই প্রথম ভ্যালেন্টাইন্স ডে তে তিনি নেই। বেঁচে থাকলে আজ ৬৮তনম জন্মদিন পালন করতেন দেশের প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। প্রয়াত বিজেপি নেত্রীর জন্মদিনে ট্যুইটারে এক আবেগঘন পোস্ট করলেন স্বরাজ কৌশল। লিখলেন "শুভ জন্মদিন- আমাদের জীবনের আনন্দ"। 

 

২০১৯ সালের ৬ অহস্ট হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে চলে যান সুষমা স্বরাজ। পেশায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সুষমা ১৯৭৩ সালে অম্বালা ক্যান্টনমেন্ট থেকে প্রথমবার বিজেপির প্রতিনিধি হিসাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। অটল বিহারী বাজপেয়ীর জমানায় দেশের তথ্য-সম্প্রচার মন্ত্রকের দায়িত্ব সামলেছিলেন এই বিদুষী নারী। প্রথম মোদী জমানাতেও ছিলেন দেশের বিদেশ মন্ত্রকের দায়িত্বে। বিদেশমন্ত্রী হিসাবে কাজ করে কুড়িয়েছিলেন যথেষ্ট প্রশংসাও। প্রয়াত নেত্রীর জন্মদিনে নিজের সঙ্গে সুষমা স্বরাজের একটি ছবি ট্যুইটারে পোস্ট করেছেন প্রধানমন্ত্রী। 

 

এদিকে ১৪ ফেব্রুয়ারি প্রয়াত নেত্রীর জন্মদিনে তাঁর স্মরণে দেশের দুই প্রতিষ্ঠানের নাম রাখা হতে চলেছে। সুষমা স্বরাজের নামে নামাঙ্কিত হতে চলেছে দেশের প্রবাসী ভারতীয় কেন্দ্রটি। ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে তার পরিচয় হবে 'সুষমা স্বরাজ ভবন' নামে। পাশাপাশি ফরেন সার্ভিস ইনস্টিটিউটের নামের সঙ্গেও যুক্ত হচ্ছে সুষমা স্বরাজের নাম। এখন থেকে এর পরিচয় হবে 'সুষমা স্বরাজ ইনস্টিটিউট অফ ফরেন সার্ভিস' নামে। দেশের দ্বিতীয় মহিলা বিদেশমন্ত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেই সরকার এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এদিন প্রাক্তন সহকর্মীকে ট্যুইটারে শ্রদ্ধা জানান দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং-ও।

 

চলতি বছর জানুয়ারিতেই সুষমা স্বরাজকে মরোনোত্তর পদ্মশ্রী প্রদান করেছে ভারত সরকার। একই সঙ্গে পদ্মশ্রী প্রধান করা হয়েছে প্রতায় প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলিকেও।