প্রবল বন্যায় বিপর্যস্ত মুম্বই। এরই মধ্যে কার্যত বিপর্যস্ত মুম্বইয়ের জনজীবন। এরই মধ্যে প্রবলবন্যার কারণে আটকে পড়েছিল মহালক্ষ্মী এক্সপ্রেস। জানা গিয়েছে, গত কয়েকদিনে প্রবল বৃষ্টির কারণে মহালক্ষ্মী এক্সপ্রেসে আটকে থাকা যাত্রীরা চরম হয়রানির শিকার হয়েছেন। 

জানা গিয়েছে শুক্রবার রাত থেকেই প্রবল বৃষ্টির কারণে বদলাপুর ও ভাঙ্গানীর মধ্যবর্তী জায়গায় আটকে রয়েছে মহালক্ষ্মী এক্সপ্রেস ট্রেন। ঘটনার খবর পাওয়ার পরই উদ্ধারকার্যে হাত লাগান জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, নৌসেনা ও বায়ুসেনা কর্মীরা। সকলের মিলিত প্রচেষ্টায় আকাশপথ এবং জলপথে চলে উদ্ধারকাজ। গত কয়েকদিনে মুম্বইয়ে প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে কার্যত বিপর্যস্ত সেখানকার একাধিক এলাকা, যার মধ্যে বদলাপুর, উল্লাসনগর, ভাঙ্গানীর নাম বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে ১১টি বিমান বাতিল হয়েছে। এছাড়াও অন্যান্যা যোগাযোগ ব্যবস্থাও বিপর্যস্ত হয়েছে।

শেষ পাওায় খবর অনুযায়ী, মহালক্ষ্মী এক্সপ্রেস ট্রেনে আটকে থাকা ১০৫০ জন যাত্রীকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।  হেলিকপ্টার, নৌকো ইত্যাদি মারফৎ উদ্ধারকাজ চালিয়ে এই বিপুল পরিমাণ যাত্রীদের নিরাপদভাবে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। একধিক সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাতকারে আটকে থাকা যাত্রীরা জানিয়েছেন, অন্তত  ১৫ ঘণ্টা ধরে তাঁরা জলের মধ্যে আটকে ছিলেন। পানীয় জল বা খাবার কোনোটাই চাঁদের কাছে ছিল না। 

এদিন মধ্য রেলওয়ের তরফ থেকে জানা গিয়েছে যে, উদ্ধার হওয়া যাত্রীদের মধ্যে বেশ কয়েকজন গর্ভবতী মহিলাও ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। তাঁদের নিরাপদ আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তাঁদের ওষুধপত্র এবং খাবার দিয়েও সাহায্য করা হয়েছে বলে খবর।