মঙ্গলবার দেশে কিছুটা হলেও কমেছিল করোনা সংক্রমণ। দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা নেমেছিল ৫৪ হাজারের নিচে। তবে বুধবার সংক্রমণের গ্রাফ ফের বাড়ল। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হলেন ৬০,৯৬৩ জন। পাশাপাশি দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যাও ২৩ লক্ষ ছাড়িয়ে গেল বুধবার। বর্তমানে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৩ লক্ষ ২৯ হাজার ৬৩৯।

 

 

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৮৩৪ জনের। ফলে দেশে কোভিড ১৯ রোগে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৬ হাজার ৯১। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মারণ ভাইরাসকে জয় করে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫৬,১১০ জন। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান বলছে, দেশে করোনা জয়ীর সংখ্যা এখন ১৬ লক্ষ ৩৯ হাজার ৫৯৯ জন। ফলে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লক্ষ ৪৩ হাজার ৯৪৮।

আরও পড়ুন: উপত্যকায় ফের সেনার অভিযান, পুলওয়ামায় এনকাউন্টারে খতম জঙ্গি, শহিদ হলেন জওয়ানও

আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কিত পোস্ট ঘিরে রণক্ষেত্র বেঙ্গালুরু, গেল প্রাণ, জারি করতে হল ১৪৪ ধারা

পরিসংখ্যান বলছে দেশে সুস্থতার হার ৬৯.৮০ শতাংশ। সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২৮.২১ শতাংশ। দেশে মৃত্যু হার নেমে এসেছে ১.৯৯ শতাংশে। এদিকে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ জানিয়েছে ১১ আগস্ট দেশে করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৭ লক্ষ ৩৩  হাজার ৪৪৯। ফলে দেশে এখনও পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২ কোটি ৬০ লক্ষ ১৫ হাজার ২৯৭। 

 

 

বর্তমানে ভারত করোনা সংক্রমণে বিশ্বে তৃতীয় স্থানে রয়েছে। আর মৃত্যুহারে পঞ্চম স্থানে। বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ইতিমধ্যে ২ কোটি ছাড়িয়েছে। মারণ ভাইরাস প্রাণ কেড়েছে ৭ লক্ষ ৪১ হাজারেরও বেশি মানুষের। এদিকে করোনা বিশ্বে মঙ্গলবারই প্রথম দেশ হিসাবে ভ্যাকসিন আবিষ্কারে দাবি করল রাশিয়া। মঙ্গলবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানালেন, তাঁর স্বাস্থ্যমন্ত্রক এই ভ্যাকসিনকে অনুমোদন দিয়েছে। অনুমোদিত ভ্যাকসিনটি প্রথম প্রয়োগ করা হয়েছে রুশ প্রেসিডেন্টের মেয়ের দেহেই।