মঙ্গলবার পাটনার বিজেপি কার্যালয়ের বাইরে পেঁয়াজ বিক্রি করতে দেখা গেল প্রাক্তন সাংসদ ও জন অধিকার পার্টির আহ্বায়ক পাপ্পু যাদব-কে। পেঁয়াজের দাম যখন সারা ভারতে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছে, সেই বাজারে তিনি পেঁয়াজ বিক্রি করলেন কেজি প্রতি মাত্র ৩৫ টাকা দরে। আর সেই খবর ছড়াতেই ব্যাপক ভিড় দেখা গেল তাঁর পেঁয়াজের দোকানে।

পাটনায় বর্তমানে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম যাচ্ছে ৮০ থেকে ৯০ টাকা। এই অবস্থায় পাপ্পু যাদব এই পেঁয়াজের দোকান দিয়ে এক ঢিলে দুই পাখি মারলেন। একদিকে সহজেই পৌঁছে গেলেন সাধারণ মানুষের কাছে, আবার একইসঙ্গে আক্রমণ শানালেন বিজেপি-র বিরুদ্ধে।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে পেঁয়াজের দাম ক্রমে বেড়ে চলেছে। এর থেকে সাধারণ মানুষকে রেহাই দিতে ব্যর্থ হওয়ায় কারণে এদিন কেন্দ্রকে তীব্র ভর্ৎসনা করেন পাপ্পু যাদব। কেন্দ্রীয় উপভোক্তা বিষয়ক, খাদ্য ও বিতরণ মন্ত্রী, রামবিলাস পাসোয়ান-কেও একহাত নেন প্রাক্তন এই সাংসদ। তিনি বলেন, কেন্দ্র ও বিহার সরকার সাধারণ মানুষকে পেঁয়াজের দাম নিয়ে স্বস্তি দেওয়ার জন্য কিছুই করছে না।

তিনি প্রশ্ন করেন, কেন্দ্র জ্বালানি তেলের উপরে ভর্তুকি দিতে পারলে পেঁয়াজের উপর ভর্তুকি দিতে পারে না কেন? কেন্দ্রের তরফে বারবার বলা হচ্ছে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি দাম কমে যাবে, কিন্তু ততদিন সাধারণ মানুষ কীভাবে থাকবে তাই নিয়ে কেউ কিছু বলছে না।

বিজেপি বিধায়ক ও তথা দলের মুখপাত্র প্রেমরঞ্জন প্যাটেল বিজেপির কার্যালয়ের বাইরে পাপ্পু যাদবের সস্তায় পেঁয়াজ বিক্রি করাকে 'নাটক' বলে কটাক্ষ করেছেন।