মদ্যপানের টাকার জোগান দিতে দিতে অতিষ্ঠ হয়ে গিয়ে নিজেদের সন্তানকেই জীবন্ত পুড়িয়ে মারল এক দম্পতি। শিউরে ওঠার মতো এই ঘটনা ঘটেছে তেলেঙ্গানার ওয়ারাঙ্গাল গ্রামীণ জেলায়। ঘটনায় অভিযুক্ত বাবা- মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

একটি সর্বভারতীয়ল ইংরেজি দৈনিকের খবর অনুযায়ী, মৃত ব্যক্তির নাম কে মহেশ চন্দ্র। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বিয়াল্লিশ বছর বয়সি মহেশ নিয়মিত মদ্যপান করে এসে তার বাবা- মায়ের উপরে অত্যাচার করত। আরও মদ খাওয়ার জন্য টাকা চাইত সে। মঙ্গলবারও একই ঘটনা ঘটে। ছেলের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে তাকে দড়ি দিয়ে একটি পোলের সঙ্গে বেঁধে গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে দেয় তাঁর বাবা কে প্রভাকর এবং মা বিমলা। হায়দ্রাবাদ থেকে প্রায় দুশো কিলোমিটার দূরে ওয়ারাঙ্গাল গ্রামীণ জেলায় এই ঘটনাটি ঘটেছে। 

পুলিশে জানিয়েছে, মদ্যপান নিয়ে নিজের স্ত্রীর উপরেও অত্যাচার চালাত মহেশ। বাধ্য দু' মাস আগে মহেশকে ছেড়ে নিজের বাপের বাড়িতে চলে যান তার স্ত্রী। এর পর থেকেই নিজের বাবা-মায়ের উপরে অত্যাচার শুরু করে মহেশ। মদ্যপানের জন্য টাকা চেয়ে সে নিজের বাবা- মাকে নিয়মিত মারধর করত বলেও জানিয়েছেন গ্রামবাসীরা। 

স্থানীয় সূত্রে খবর, মহেশের একটি করে পুত্র এবং কন্যাসন্তান রয়েছে। মঙ্গলবার রাতেও বাড়ি ফিরে নিজের বাবা- মাকে মারধর শুরু করে সে। এর পরই নৃশংস ওই কাণ্ড ঘটিয়ে ফেলেন বৃদ্ধ দম্পতি। 

স্থানীয় কৃষি বাজারে ক্লার্ক হিসেবে কর্মরত মহেশ ঘটনাস্থলেই মারা যায়। পুলিশ পৌঁছে তার দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করা