হায়রাবাদের পর এবার প্রকৃতির রক্ত চক্ষু মহারাষ্ট্রের দিকে।  প্রবল বৃষ্টিতে ইতিমধ্যের রাজ্যের বেশ কয়েকটি এলাকায় বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। শুক্রবার রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কথা বলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে। কেন্দ্র প্রয়োজনীয় সাহায্য করবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। উদ্ধব ঠাকরেকে প্রধানমন্ত্রী বলেন ত্রাণ ও উদ্ধার কাজে কেন্দ্র রাজ্যেটিকে প্রয়োজনীয় সাহায্য করবে। প্রাকৃতিক দুর্যোগে পড়া মাহারাষ্ট্রের বাসিন্দাদের নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।  বন্যা দুর্হতদের জন্য তিনি প্রার্থনা করছেন বলেও জানিয়েছেন। 

j

গত তিন দিন ভারী বৃষ্টিকে মহারাষ্ট্রের পুনে, আওরঙ্গাবাদ, কোঙ্কন উপকূল সংলগ্ন এলাকায় বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এখনও পর্যন্ত প্রাকৃতিক তাণ্ডব ৪৭ জনের প্রাণ কেড়েছে। লক্ষা লক্ষ হেক্টর জমির ফসল জলের তলায় চলে গেছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে প্রবল বৃষ্টিতে  পুনেতে প্রায়  ২ হাজার বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এখনও পর্যন্ত ২১ হাজার বন্যা দুর্গত মানুষকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। রাজ্যের  বিস্তীর্ণ এলাকায় পরিস্থিতি রীতিমত সংকটজনক বলেও জানান হয়েছে। 

পুনে রত্নগিরি রায়গড়সহ বেশ কয়েকটি এলাকায় প্রবল বৃষ্টির কারণে ক্ষতির মুখোমুখি হয়ে হয়েছে কৃষকদের। আখ, সোয়াবিন, চাল, ডালিম, তুলোর মত অর্থকরী ফল নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের ক্ষতিপুরণের দাবি জানান হয়েছে। অন্যদিকে উপ মুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ার রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে খুব তাড়াতাড়ি একটি রিপোর্ট তৈরি করতে নির্দেশ দিয়েছেন।