বছরের প্রথম দিনেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী লাইট হাউস প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। এটি গ্লোবাল হাউসিং টেকনোলজি চ্যালেঞ্জের আওয়াত থাকা একটি প্রকল্প। এই প্রকল্পের উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আরও একবার আত্মনির্ভর ভারত গঠনের বার্তা দেন। তিনি বলেন অন্ধের মত কোনও টেকনোলজিকে চ্যালেঞ্জ জানাবার প্রয়োজন নেই। কারণ এই প্রকল্পটির মূল লক্ষ্য বিশ্বজুড়ে উদ্ভাবনী প্রযুক্তি চিহ্নিত করা। পাশাপাশি দুর্যোগ প্রতিরোধ করতে পারে এই প্রযুক্তিকে চিহ্নিত করা। এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীরা। ছিলেন কেন্দ্রীয় আবাসন ও নগর উন্নয়ন মন্ত্রী। 

অনুষ্ঠানের প্রধানবক্তা ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, লাইটহাউস প্রকল্পের অধীনে দেশে মোট ৬টি আবাসন প্রকল্প রয়েছে। এটি যুক্তরাজ্যের পরিকাঠামোকে আরও শক্তিশালী করবে। তিনি আরও আরও বলেন এর আগে আবাসন প্রকল্পগুলিকে এতটা গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কথায় এই প্রকল্পের অধীনে ৬টি শহরেরকে বেছে নেওয়া হয়েছে। আর সেই শহরগুলিকে কম খরচে, মজবুত ও দুর্যোগ প্রতিরোধন প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রায় এক হাজার বাড়ি তৈরি করা হবে। ইতিমধ্যেই ২৫টি দেশ থেকে ৩২টি নতুন প্রযুক্তি এসেছে। যা মূল্যয়ন কমিটি খতিয়ে দেখছে। এই প্রকল্পের জন্য রাজকোট, রাঁচি, ইন্দোর, চেন্নাই, আগরতলা, লখনউকে বেছে নেওয়া হয়েছে। আগামী দিনে অন্যান্য রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিতেও এই জাতীয় বাড়ি তৈরির পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে বলেও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।