লকডাউন ৩ চলাকালীন ১২ মে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আহ্বান জানিয়েছিলেন করোনার ধ্বংসস্তূপ থেকে অর্থনীতিকে জাগিয়ে তুলে আত্মনির্ভর ভারত গড়ে তোলার। মঙ্গলবার কনফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ান ইন্ডাস্ট্রিজ (সিআইআই)-এর বার্ষিক অধিবেশনে 'গেটিং গ্রোথ ব্যাক' শীর্ষক আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী ভারতকে 'আত্মনির্ভর' করার জন্য, ৫ গুরুত্বপূর্ণ জিনিসের তালিকা দিলেন।

তিনি বলেন, 'ইন্টেন্ট, ইনক্লুশন, ইনভেস্টমেন্ট, ইনফ্রাস্ট্রাকচার আর ইনোভেশন' (উদ্দেশ্য, অন্তর্ভুক্তি, বিনিয়োগ, পরিকাঠামো এবং উদ্ভাবন) - এই পাঁচটি বিষয়ই ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিকে দ্রুত ফিরিয়ে আনতে এবং আত্মনির্ভর ভারত গড়ে তুলতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

প্রধানমন্ত্রী দাবি করেন, সাম্প্রতিককালে তাঁর সরকারের গ্রহণ করা সাহসী সিদ্ধান্তগুলির মধ্য়ে এই পাঁচচ বিষয়ের একটা ঝলক দেখা গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী আরও যোগ করেন এইসব সিদ্ধান্তের মাধ্যমে ভারত বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে ভবিষ্যতের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। তাঁর সরকারের সংস্কারগুলি কোনও 'বিক্ষিপ্ত' সিদ্ধান্ত নয় বরং নিয়মতান্ত্রিক, সংহত, এবং পরিকল্পিত, আন্তঃসংযুক্ত এবং ভবিষ্যতকে মাথায় রেখে নেওয়া।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, 'করোনার বিরুদ্ধে অর্থনীতির পুনর্গঠন করা আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার। এর জন্য সরকার তাৎক্ষণিক কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমরা এমন কিছু সিদ্ধান্তও নিয়েছি যা দেশকে দীর্ঘমেয়াদী ক্ষেত্রে সহায়তা করবে।"

তিনি আরও দাবি করেন, ভারত করোনাভাইরাস-এর জন্য লকডাউন জারির দিন কাটিয়ে যে আনলক ১-এর প্রথম দফায় প্রবেশ করেছে, এখান থেকেই অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি স্থিতিশীল হবে। ভারতের প্রতিভা, প্রযুক্তি, উদ্ভাবন এবং বুদ্ধির উপর ভরসা ও কৃষক, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পগুলি, উদ্যোক্তা এবং শিল্প নেতাদের উপর আমার পূর্ণ বিশ্বাসের জোরে ভারত অবশ্যই তার প্রবৃদ্ধি ফিরে পাবে বলে তিনি নিশ্চিত।