শনিবার (২৩ জানুয়ারি) বিকালে পশ্চিমবঙ্গে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে একই অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়া-সহ নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৪তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে বেশ কয়েকটি কর্মসূচিতে অংশ নেবেন তিনি। তবে তাঁর এই আগমন শুধু নেতাজির জন্মদিবস পালন নয়, বাংলার নির্বাচনী পালায় আরও এক পর্বের সূচনা করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তার আগেই শনিবার সকাল সকাল, একেবারে খাঁটি বাংলায় টুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী।

এদিন প্রধানমন্ত্রী টুইট করে বলেন, 'পশ্চিম বঙ্গের প্রিয় ভাই ও বোনেরা, পরাক্রম দিবসের, এই শুভ দিনটিতে আপনাদের মধ্যে আসতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি। কলকাতায় এই উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আমরা বীর-কেশরী সুভাষ চন্দ্র বসুকে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানাব।' (বানান অপরিবর্তিত)

পরে হিন্দিতে আরও এক টুইটে নরেন্দ্র মোদী বলেছেন, 'মহান স্বতন্ত্র সেনানী ও ভারত মাতার সত্যিকারের পুত্র' ছিলেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু। তাঁর জন্মবার্ষিকীতে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেন দেশের স্বাধীনতার জন্য নেতাজির 'ত্যাগ এবং সমর্পণ'কে দেশের মানুষ কৃতজ্ঞ চিত্তে সর্বদা স্মরণ করবে।

আরও পড়ুন - কানে জড়িয়ে দেওয়া হল জ্বলন্ত টায়ার, পুড়ে মৃত্যু হাতির, ক্যামেরায় ধরা পড়ল চরম অমানবিকতা, দেখুন

আরও পড়ুন - ট্র্যাক্টর মিছিলে ৪ কৃষক নেতাকে খুনের ছক, দিল্লির সিংঘু সীমান্তে ধরা পড়ল মুখোশধারী

আরও পড়ুন - এবার কি 'ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল'এরও নাম বদল, কী সুপারিশ করল মোদীর নেতাজি কমিটি

এদিন বিকাল ৩ টে নাগাদ দমদম বিমান বন্দরে এসে পৌঁছনোর কথা নরেন্দ্র মোদীর। সাড়ে ৩টেয় যাবেন জাতীয় গ্রন্থাগারে। এরপর রয়েছে নেতাজির উপর আয়োজিত একটি আন্তর্জাতিক সেমিনার। সাড়ে ৪ টেয় আসবেন ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে। সেখানে, আমন্ত্রিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় এবং রাজ্যপাল জগদীপ ধনখরও। ৭টায় ভিক্টোরিয়ার অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার কথা। রাত ৮ টায় দিল্লি ফেরার বিমান ধরার কথা তাঁর।