ইদের মরসুমে চারদিকে সাজ সাজ রব এবার নেই। করোনা মহামারীর কারণে এক জায়গায় জমায়েত করে উৎসবের মেজাজ পাওয়া যাবে না এবছর। মারণ ভাইরাসের দাপটে কেমন যেন তছনছ হলে গিয়েছে জীবনের ছন্দ। তাতে কী। এর মাঝেই খুঁজে নিতে হবে আনন্দ। এই আবহেই শনিবার দেশ জুড়ে পালিত হচ্ছে বকরি ইদ বা কোরবানি ইদ। শনিবার সকালেই ইদ উপলক্ষ্যে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ট্যুইটে সৌভ্রাত্বের কথাও বলেন তিনি।

 

 

বকরি ইদ উপলক্ষ্যে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানান রাষ্ট্রপতিও। করোনা আবহে তিনি মনে করিয়ে দেন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে উৎসব পালনের কথা।

 

 

পবিত্র ইদ-উল-আদাহ  উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতের  নরেন্দ্র মোদী। শেখ হাসিনাকে পাঠানো এক বার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমি বাংলাদেশের জনগণ ও সরকারকে আন্তরিক  শুভেচ্ছা জানাই।”

আরও পড়ুন: আনলক ৩ পর্বে ঘুরতে চলুন ভ্যালি অফ ফ্লাওয়ার্সে, তবে থাকতে হবে কোভিড পরীক্ষার রিপোর্ট

মোদী তাঁর ইদ-বার্তায় আরও বলেন, “ইদ-উল-আদাহ ভারতের কিছু অংশেও উদযাপিত হয় এবং এটি আমাদের দুই দেশের গভীর ঐতিহাসিক ও সাংস্কৃতিক বন্ধনকে মনে করিয়ে দেয়। আমরা আশা করি, এই উৎসব আমাদের দুই দেশের সমাজকে শান্তি ও সহিষ্ণুতার চেতনায় সমৃদ্ধ করবে এবং আমাদের মধ্যকার ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্কের প্রচার করবে।”

আরও পড়ুন: ৭৩ বছরে প্রথম বার, পাক সীমান্ত লাগোয় দেশের শেষ গ্রাম এবারের ১৫ আগস্টে পাচ্ছে স্বাধীনতার প্রকৃত স্বাদ

পবিত্র ইদ উপলক্ষ্যে হাসিনা ও বাংলাদেশের জনগণের সুস্বাস্থ্য, মঙ্গল ও শ্রীবৃদ্ধি কামনা করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। সম্প্রতি ইদের উপহার হিসাবে বাংলাদেশকে ১০টি রেল ইঞ্জিনও উপহার দিয়েছে ভারত।