ট্যাক্সি চালককে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার করা হল এর আরপিএফ কনস্টেবলকে। ঘটনাস্থল বাণিজ্যনগরী মুম্বই। অভিযুক্তের নাম অমিত ধানকড়। ঘটনার সময় ২৯ বছরের এই যুবক মদ্যপ অবস্থায় ছিল বলে অভিযোগ।

নির্যাতিত ট্যাক্সি চালক জানান, রবিবার গভীর রাতে দক্ষিণ মুম্বইয়ের পি ডি'মেলো রোডে কনস্টেবল ধানকড়ের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন তিনি। গ্যান্ট রোডে রেড লাইট এলাকায় ড্রপ কের দেওয়ার কথা বলেছিল আরপিএফের ওই কনস্টেবল। কিন্তু ট্যাক্সিতে অন্যান্য যাত্রীরা থাকায় ট্যাক্সি চালক তাকে নিতে অস্বীকার করেন। এতেই মেজাজ হারিয়ে লাঠি ও বিয়ারের বোতল দিয়ে ট্যাক্সিচালককে পেটায় সে। অন্যযাত্রীরা ভয়ে পালিয়ে গেলে অদূরে রেলের নিরিবিলি জায়গায় নিয়ে গিয়ে চালকের উপর নির্যাতন চালায় সে। 

আরও পড়ুন : বড়িশ ফেলতেই উঠে এল ৩৫০ পাউন্ড ওজনের মাছ , বয়স পেড়িয়েছে অর্ধশতাব্দী

ধর্ষণের পাশাপাশি আরপিএফ কনস্টেবল অমিত ধানকড়ের বিরুদ্ধে টাকা ও মোবাইল ফোন লুটের অভিযোগ এনেছেন ওই ট্যাক্সি চালক। এই মদ্যপ কনস্টেবলের খপ্পর থেকে পালিয়ে এরপর এমআরএ মার্গ থানায় এফআইআর দায়ের করেন তিনি। 

আরও পড়ুন : তাইকন্ডোতে মুন্সিয়ানা, বিশ্বরেকর্ড গড়ল হায়দরাবাদের ৫ বছরের খুদে

ট্যাক্সি চালকের অভিযোগের ভিত্তিতে কর্নক ডকের অদূরে আরপিএফ ব্যারাক থেকে ধানকড়কে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭, ৩৯৪ ও ৩৮৭ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। অভিযুক্তকে আগামী ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় আদালত।