অন্ধ্রপ্রদেশের কুরনুল প্রদেশের কৃষক। দিন আনা দিন খাওয়া ওই কৃষকের দুই বেলা ভাত খাওয়া জোটে কি না সন্দেহ। কোনও রকমে একবেলা খেয়ে আর একবেলা না খেয়ে দিন গুজরান করেন ওই কৃষক। জীবনের প্রতি বীতশ্রদ্ধ ওই কৃষক সমস্ত আশা অনেক আগেই ছেড়ে দিয়েছিলেন। রোজ দিনের মতো তাঁর নিজের খেতে যেতেই অবাক কাণ্ড। কৃষিকাজ করতে করতে করতে তিনি পেয়ে যান  একটা হিরে। বাজারে সেই হীরের মূল্য প্রায় ৬০ লক্ষ টাকার বেশি।  এই অবাক করা কাণ্ড ঘটেছে অন্ধ্রপ্রদেশের কুরনুল জেলার গোলাভানাপল্লী গ্রামে।  এক রাতের মধ্যে ওই দরিদ্র কৃষক হয়ে যান লাখপতি। 

ওই কৃষক ইতিমধ্যে স্থানীয় এক ব্যবসায়ীকে ওই হিরে বিক্রী করে ১৩ লক্ষ টাকা পেয়েছে। সঙ্গে ওই গয়নার ব্যবসায়ীকে কৃষককে ৫০ গ্রাম ওজনের সোনাও দিয়েছেন। যদিও অন্ধপ্রদেশ প্রশাসন বা স্থানীয় প্রশাসন এই বিষয়ে কোনও সরকারি বিবৃতি প্রকাশ করেনি। তবে ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য পড়ে গিয়েছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। হিরেটি কত বড় বা কত ক্যারটের সেই বিষয়ে কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে  গোলাভানাপল্লী সহ অন্ধ্রপ্রদেশের বেশ কিছু গ্রামে বর্ষাকালে হিরে খুঁজতে বের হন স্থানীয়রা। জানা যায়, দূর দূর থেকে অনেক লোক ওই সব এলাকায় হিরে খুঁজতে আসেন। 

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে ১২ জুন অন্ধ্রপ্রদেশের  জোন্নাগিরি থেকে এক ব্যক্তি মাটি খুঁড়ে ৮ ক্যারেটের একটি হিরে পান। স্থানীয় বাজারে ওই হিরে বিক্রি করে ব্যক্তিটি ২০ লক্ষ টাকা পান। তবে জানা যায়, বাজারে ওই হিরের আনুমানিক মূল্য ৫০ লক্ষ টাকা ছিল।