৭৪তম স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দ। প্রত্যাশিতভাবেই এদিন তাঁর বক্তৃতায় উঠে এল বিশ্বজুড়ে কোভিড মহামারির দাপটের কথা। আর সেই মহামারির হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে নিজেদের বিপদের সামনে ছুঁড়ে দিয়েছেন যাঁরা, সেই ডাক্তার, স্বাস্থ্যকর্মী-সহ সকল কোভিড-যোদ্ধাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন রাষ্ট্রপতি।

এইসব স্বাস্থ্যকর্মীদের কাছে দেশ আজ ঋণী বলে জানিয়েছেন রামনাথ কোভিন্দ। দায়িত্বের সীমার বাইরে গিয়েও যেভাবে তাঁরা মানুষের প্রাণ বাঁচাতে উদ্যোগী হয়েছেন, প্রয়োজনীয় পরিষেবাগুলি চালু রেখেছেন, তাতে তাঁদের জন্য কোনও প্রশংসাই যথেষ্ট নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি। তাঁদের দেশের  'আদর্শ সেবা-যোদ্ধা'র আখ্যা দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি।

তিনি আরও জানান, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের জন্যই ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে রীতি মেনে উৎসব করা যাচ্ছে না। তবে এই মহামারির বিরুদ্ধে ভারত সাফল্য পেয়েছে বলেই জানিয়েছেন তিনি।

একই সঙ্গে মহামারির সময়ে বিশ্বের বিভিন্ন জায়গা থেকে দশ লক্ষেরও বেশি ভারতীয়কে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের প্রশংসা করেন তিনি। প্রশংসা করেছেন 'প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনা'র-ও। এই যোজনার ফলে কোটি কোটি মানুষ জীবিকা ফিরে পেয়েছেন, কোনও পরিবারকে অনাহারে থাকতে হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

এছাড়া, স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে তিনি স্বাধীনতা সংগ্রামীদের আত্মত্যাগ-কে স্মরণ করেছেন। তাঁদের জন্যই আজকের তরুণরা একটি মুক্ত দেশের বাসিন্দা বলে জানিয়েছেন তিনি। এর জন্য গর্বিত ভারতের যুবরা। মহাত্মা গান্ধীর মতো ব্যক্তি ভারতের পথপ্রদর্শক বলে ভারতবাসী ভাগ্যবান বলে, তিনি জানিয়েছেন, তরুণ প্রজন্ম গান্ধীজি-কে নতুনভাবে আবিষ্কার করতে পেরেছে।