বুধবার, কেন্দ্রীয় শিল্প সুরক্ষা বাহিনী বা সিআইএসএফ (CISF)-এর প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে বাহিনীর সাহস ও বীরত্বের ভূয়সী প্রশংসা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তবে শুধু বাহিনীর সদস্যদেরই নয়, তাঁদের পরিবারবর্গেরও সাহসীকতার কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। সেইসঙ্গে তিনি বলেন, জাতীয় সুরক্ষা এবং দেশের অগ্রগতিকে আরও এগিয়ে নিতে সিআইএসএফ জওয়ানদের দারুণ মূল্যবান ভূমিকা রয়েছে।

এদিন একটি টুইট করে, নরেন্দ্র মোদী বলেন, 'প্রতিষ্ঠা দিবসে, সাহসী সিআইএসএফ কর্মীদের এবং তাদের পরিবারকে অভিনন্দন। জাতীয় সুরক্ষা এবং অগ্রগতিকে আরও এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে তাদের ভূমিকা অত্যন্ত মূল্যবান।' ২০১৯ সালে, সিআইএসএফ-এর প্রতিষ্ঠা দিবস উদযাপনের জন্য হওয়া অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সেইদিনের বক্তৃতার ভিডিওও তিনি একই টুইটের সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন।

১৯৬৯ সালের ১০ মার্চ তারিখে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল কেন্দ্রীয় শিল্প সুরক্ষা বাহিনী। গুরুত্বপূর্ণ সরকারি ভবনগুলির এবং শিল্পকেন্দ্রগুলি সুরক্ষার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল এই বাহিনীকে। বর্তমানে তার সঙ্গে সঙ্গে দেশের নিরাপত্তা সংক্রান্ত আরও অনেক দায়িত্ব পালন করে থাকেন বাহিনীর জওয়ানরা। দিল্লির গাজিয়াবাদে সিআইএসএফ-এর পঞ্চম রিজার্ভ ব্যাটেলিনের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভাল্লা।

এই বছর ৫২তম সিআইএসএফ রেইসিং ডে বা সিআইএসএফ-এর প্রতিষ্ঠা দিবস। দেশজুড়ে বিভিন্ন জায়গায় এদিন সিআইএসএফের কর্মকর্তা ও জওয়ানরা প্যারেড ও অন্যান্য বিভিন্ন সামরিক প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে দিনটি পালন করছে। এদিন, বিভিন্ন সময়ে সাহসিকতার নিদর্শন রাখা বাহিনীর কৃতী সদস্যদের হাতে স্বীকৃতি স্বরূপ পদকও তুলে দেওয়া হবে।