অযোধ্যা মামলার রায়দানের আগে দেশবাসীর কাছে শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। টুইটারে প্রধানমন্ত্রীর আবেদন, আদালত যে রায়ই দিক না কেন, ভারতের শান্তি, ঐক্য এবং সদভাবনার মহান পরম্পরা যেন আরও শক্তিশালী হয়। 

দীর্ঘ চল্লিশ দিনের শুনানির পরে অবশেষে শনিবার সকাল সাড়ে দশটায় অযোধ্যা মামলার রায়দান করবে সুপ্রিম কোর্ট। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ বহু প্রতীক্ষিত রায় ঘোষণা করবে। স্পর্শকাতর অযোধ্যা মামলার রায়দানের পরে অশান্তির আশঙ্কা করছে কেন্দ্রীয় সরকার। সেই আশঙ্কা থেকেই নিরাপত্তার ঘেরাটোপে মুড়ে ফেলা হয়েছে অযোধ্যাকে। রায়দানের আগেই দেশবাসীর কাছে তাই শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানালেন প্রধানমন্ত্রী। 

আরও পড়ুন- শনিবারই অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণা, সকালেই নিষ্পত্তি হবে ঐতিহাসিক বিবাদের

আরও পড়ুন- রামমন্দিরের প্রথম ইঁট গেঁথেছিলেন ইনিই, রায় বের হওয়ার আগে কী বলছেন সেই কামেশ্বর

টুইটারে এ দিন প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, 'অযোধ্যা নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট রায়দান করতে চলেছে। গত কয়েক মাস ধরে এই বিষয়টি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে টানা শুনানি চলেছে। গোটা দেশ উৎসুক হয়ে এই রায়ের দিকে তাকিয়ে আছে। রায়দানের সময় সবপক্ষ সদভাবনার পরিবেশ বজায় রাখলেই তা খুবই প্রশংসনীয় হবে।'

 

 

যেভাবে আদালতের সম্মানের কথা মাথায় রেখে এই মামলার শুনানি চলাকালীন সবপক্ষই পরস্পরের প্রতি সৌহার্দ্যপূর্ণ এবং ইতিবাচক ব্যবহার করেছে, তাকেও স্বাগত জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আদালতের রায়দানের পরেও একই পরিবেশ বজায় রাখার জন্য আবেদন জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী।  

 

 

সবশেষে প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, 'অযোধ্যা নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট যে রায়ই দিক না কেন, তাতে কারও হার-জিত হবে না। দেশবাসীর কাছে আমার আবেদন, এই রায় যাতে দেশের শান্তি, ঐক্য এবং সদভাবনাকে আরও শক্তিশালী করতে পারে, সবাই সেই বিষয়টিকেই অগ্রাধিকার দিন।'